খালেদা জিয়া কেন দিচ্ছেন 'ভিশন ২০৩০'

  • ৯ মে ২০১৭
ছবির কপিরাইট MUNIR UZ ZAMAN
Image caption খালেদা জিয়া

বাংলাদেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপির নেত্রী খালেদা জিয়া বুধবার 'ভিশন ২০৩০' নামে একটি রূপকল্প প্রকাশ করবেন। কেন এখন এই রূপকল্প? কী থাকছে তাতে - এ নিয়ে গত কদিন ধরে রাজনৈতিক মহলে কথাবার্তা চলছে।

২০১৪ সালে নির্বাচন বর্জন করলেও ধারণা করা হচ্ছে, আগামী সাধারণ নির্বাচনকে সামনে রেখে এ রূপকল্প ঘোষণা করতে যাচ্ছে দলটি।

দলটির বেশ কজন শীর্ষ নেতা বিবিসিকে বলছেন, বিএনপি'র রূপকল্পের মূল ভিত্তি হচ্ছে উদার গণতন্ত্রের সাথে অর্থনৈতিক উন্নয়ন। বিভিন্ন ক্ষেত্রে যেমন - অর্থনীতি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সামাজিক উন্নয়ন এবং পররাষ্ট্রনীতি নিয়ে দলটি ভবিষ্যতের জন্য কী ভাবছে তার একটি দলিল হবে এ রূপকল্প।

বিএনপি'র প্রধান রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ২০০৮ সালের সাধারণ নির্বাচনের আগে 'ভিশন ২০২১' উপস্থাপন করেছিল। সে ভিশনের প্রধান বিষয় ছিল 'ডিজিটাল বাংলাদেশ' শ্লোগান। ভোটারদের কাছে বিশেষ করে তরুণদের উপর সেটি বেশ প্রভাব ফেলেছিল।

গত ১০ বছরে বাংলাদেশের রাজনীতিতে আওয়ামী লীগ তাদের এ রূপকল্পের মাধ্যমে রাজনীতির মাঠে সুবিধা আদায় করে নিয়েছে। কিন্তু এর বিপরীতে রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি'কাছ থেকে এ ধরণের কোন পরিকল্পনা শোনা যায়নি।

দেরিতে হলেও দলটি হয়তো এখন অনুধাবন করেছে যে তাদের প্রতিপক্ষের সাথে তাল মিলিয়ে রাজনীতি এবং ভোটারদের উপর প্রভাব বিস্তার করতে হলে একটি রূপকল্প উপস্থাপন করা জরুরী।

"আমরা মনে করেছি দেশের সামনে আমাদের ভিশনটা তুলে ধরা দরকার। দেশের রাজনীতি, অর্থনীতি এবং সমাজনীতি নিয়ে বিএনপি কী ভাবছে সেগুলো তো একটা সময় জানাতে হবে জনগণকে," বিবিসিকে বলছিলেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারির বিতর্কিত নির্বাচনের পর বিএনপি দেশে-বিদেশে বিভিন্ন ফোরামে বোঝাতে চেয়েছে যে আওয়ামী লীগ সরকারের দেশ পরিচালনার কোন নৈতিক ভিত্তি নেই। কারণ তারা সংখ্যাগরিষ্ঠের ভোটে নির্বাচিত হয়নি এবং অর্ধেকের বেশি আসনে কোন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি।

কিন্তু বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের সাথে বিএনপি'র শীর্ষ নেতারা যখন আলোচনা করেছে তখন বিভিন্ন সময় তারা জানতে চেয়েছে ভবিষ্যতে বিএনপি বাংলাদেশকে কিভাবে দেখতে চায়? তাদের কোন রাজনৈতিক ভিশন আছে কিনা? আওয়ামী লীগ যেভাবে দেশ পরিচালনা করছে তার বিপরীতে বিএনপি'র পরিকল্পনা কী? এসব প্রশ্নের জবাব দলটিকে দিতে হয়েছে।

বিএনপি'র কয়েকজন নেতার সাথে কথা বলে এ ধারণা পাওয়া গেছে। আর সেই প্রেক্ষাপটেই বিএনপির এই ভিশন বা রূপকল্প।

ছবির কপিরাইট FARJANA K. GODHULY
Image caption বিএনপির রূপকল্পের অন্যতম টার্গেট হবে তরুণ প্রজন্ম

বিএনপি'র 'ভিশন ২০৩০' প্রণয়নে দলকে সহায়তা করেছে দলটির সাথে ঘনিষ্ঠ সাবেক আমলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এবং পেশাজীবীরা।

তাদের অনেকেই মনে করেন, বাংলাদেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট অনেকটাই বদলে গেছে। ভোটারদের মধ্যে ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সী ভোটারদের সংখ্যা অনেক বেড়েছে। দেশ পরিচালনায় তাদের চাহিদাকে গুরুত্ব দিতে হবে।

বিএনপি'র সাথে ঘনিষ্ঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক মাহবুল্লাহ মনে করেন, রাজনৈতিক রূপকল্প তৈরি করা এখন সময়ের চাহিদা।

তিনি বলেন, "যুগ পাল্টাচ্ছে, সময় পাল্টাচ্ছে। প্রজন্ম থেকে নতুন প্রজন্মের সৃষ্টি হচ্ছে। তাদের ধ্যান ধারণার সঙ্গে ট্র্যাডিশনাল নেতৃত্বের একটি দূরত্ব তৈরি হচ্ছে। দূরত্ব কমানোটা রাজনৈতিক দলের জন্য বড় কাজ।"

শুধুমাত্র সরকারের সমালোচনা না করে, দল হিসেবে বিএনপি'র পরিকল্পনা কী সেটি মানুষের সামনে তুলে ধরতে চাইছে দলটি।