বাংলাদেশে বহুল আলোচিত বনানী ধর্ষণ মামলায় দুই ছাত্রীর জবানবন্দী

ছবির কপিরাইট LEISA TYLER
Image caption দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের এক মামলা নিয়ে তোলপাড়া চলছে বাংলাদেশে (ফাইল ফটো)

ধর্ষণের যে মামলা নিয়ে বাংলাদেশে এখন তোলপাড় চলছে, তাতে আজ বিচারকের সামনে জবানবন্দী দিয়েছেন অভিযোগকারী দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী।

ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে এই অত্যন্ত গোপনীয়তার সাথে এই জবানবন্দী নেয়া হয়।

আদালতের সরকারি উকিল (পিপি) আব্দুল্লাহ আবু বিবিসিকে জানিয়েছেন, কাদের বিরুদ্ধে তাদের অভিযোগ, কখন কোন পরিস্থিতিতে ঘটনাটি ঘটেছিলো - তার পুরো বর্ণনা ঐ দুই নারী বিচারকের সামনে বলেছেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের ২২ ধারায় এই জবানবন্দী নেয়া হয়। পিপি মি আবু বলেন, এই জবানবন্দী তদন্তের ক্ষেত্রে শক্ত সাক্ষ্যপ্রমাণ হিসাবে বিবেচিত হবে।

ওদিকে, ঢাকা গোয়েন্দা পুলিশের মুখপাত্র মাসুদুর রহমান বিবিসিকে বলেছেন, সংশ্লিষ্ট হোটেল সহ বিভিন্ন স্থানে গিয়ে দেখে-শুনে, কথা বলে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা তারা পেয়েছেন। তিনি জানান, বিভিন্ন আলামতও পুলিশ জব্দ করেছে।

আরও পড়ুন: ঘর থেকে বেরিয়ে এসে 'আত্মঘাতী' বিস্ফোরণ, নিহত ৬

শুল্ক ফাঁকি: জাতিসংঘ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলার সুপারিশ

বনানী পুলিশ প্রথমে অভিযোগ নিতে গড়িমসি করেছিলো, অভিযোগ পেয়েও অভিযুক্তদের কজন ধনী পরিবারের হওয়ায় তাদের আটকে গড়িমসি করায় তারা পালিয়ে যেতে পেরেছে - সোশ্যাল মিডিয়াতে এসব সন্দেহ নিয়ে তুমুল তর্ক-বিতর্ক চলছে।

মাসুদুর রহমান রহমান বলেছেন, অভিযুক্ত পাঁচজনকে তারা সনাক্ত করেছেন। তাদের ধরতে সম্ভাব্য সব জায়গায় তারা হানা দিচ্ছেন।

অভিযুক্তরা দেশের বাইরে চলে গিয়ে থাকতে পারে কিনা- এই প্রশ্নে ঐ গোয়েন্দা কর্মকর্তা বলেন, পুলিশ মনে করছে তারা দেশেই রয়েছে।

সম্পর্কিত বিষয়