বাংলাদেশে বনানী ধর্ষণ মামলায় সাফাত ছয় দিনের ও সাদমান পাঁচ দিনের রিমান্ডে

  • ১২ মে ২০১৭
কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে অভিযুক্তদের আদালতে হাজির করা হয় ছবির কপিরাইট Focus Bangla
Image caption কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে অভিযুক্তদের আদালতে হাজির করা হয়

ঢাকার বনানীতে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার মূল আসামি সাফাত আহমেদকে ছয় দিনের এবং সাদমান সাকিফকে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

গ্রেপ্তার দুই অভিযুক্তকে ঢাকার মহানগর হাকিমের আদালতে হাজির করার পর পুলিশের পক্ষ থেকে দশ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন করা হয়েছিল।

রিমান্ড আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটার আব্দুল্লাহ আবু।

আসামী পক্ষের আইনজীবী অভিযুক্তদের নির্দোষ দাবি করে রিমান্ডের আবেদন বাতিল করার এবং অভিযুক্তদের জামিনে মঞ্জুর করার অনুরোধ জানান।

এই মামলায় যেহেতু আরও আসামি আছে তাই অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজনে তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে বলে আব্দুল্লাহ আবু বিবিসি বাংলাকে জানান।

আরও পড়ুন:

বাংলাদেশে বহুল আলোচিত বনানী ধর্ষণ মামলায় দুই ছাত্রীর জবানবন্দী

সিলেটে ধরা পড়লো বনানী ধর্ষণ মামলার দুই আসামী

ঢাকায় ছাত্রী ধর্ষণ: এত দেরিতে তদন্ত কি সম্ভব?

ঢাকার নামকরা একটি গহনার দোকানের মালিকের ছেলে সাফাত এবং রাজধানীর অভিজাত এলাকার একটি রেস্তোরাঁর অন্যতম একজন মালিকের ছেলে সাদমানকে কড়া পুলিশি প্রহরায় আদালতে আনা হয়।

আদালত প্রাঙ্গণে সাংবাদিক ও আইনজীবীদের পাশাপাশি ছিল উৎসুক জনতার ভিড়।

দুজন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী অভিযোগ করেছেন গত ২৮শে মার্চ একটি হোটেলে আয়োজিত এক জন্মদিনের পার্টিতে আমন্ত্রণ জানিয়ে নিয়ে গিয়ে তাদের জোর করে ধর্ষণ করা হয়েছিল।

এ মাসের ৬ তারিখে ওই দুই ছাত্রী ঢাকার বনানী পুলিশের কাছে গিয়ে পাঁচজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন।

সম্পর্কিত বিষয়