ব্রিটেনের ম্যানচেস্টারে কনসার্টে হামলা: কী জানা যাচ্ছে?

ছবির কপিরাইট PETER BYRNE
Image caption অ্যামেরিকান গায়িকার গান শেষে বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটে।

ব্রিটেনের ম্যানচেস্টার অ্যারেনাতে সন্দেহভাজন সন্ত্রাসী হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২ জন। আর আহতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৫৯ জনে।।

ঘটনার পরপর প্রত্যক্ষদর্শীদের একজন বলেন, বহু মানুষকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকতে দেখেন এবং অনেককে দেখে 'মৃত' বলে মনে হচ্ছিল।

এই হামলাটি ঘটলো এমন এক সময় যখন ব্রিটেন নির্বাচনী প্রচারণার মধ্যে আছে।

বিবিসি বাংলা বিভাগের সম্পাদক সাবির মুস্তাফা লন্ডন থেকে জানান, বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এবং বিরোধী দলের নেতার ভূমিকা বেশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।

তিনি আরও বলেন, আমেরিকা থেকে যে খবর আসছে সেখানে বলা হচ্ছে মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা মনে করছেন এটি 'আত্মঘাতী হামলা'।

ঘটনাটি কারা ঘটিয়েছে সে সম্পর্কে এখনো পুলিশের কাছে উল্লেখযোগ্য কোনও তথ্য না থাকলেও, আগামি কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ব্রিটিশ পুলিশ হয়তো হামলাকারীদের সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে বলে মনে করা হচ্ছে।

পুলিশ জরুরি একটি নম্বর প্রকাশ করেছে যেখানে ফোন করে বন্ধু বা স্বজনদের সম্পর্কে খোঁজ নেয়া যাবে।

মঙ্গলবার ম্যানেচস্টার ভিক্টোরিয়া স্টেশনে আসা-যাওয়ার সব ট্রেন বন্ধ থাকবে।

সাধারণ নির্বাচনের সব ধরনের প্রচারণা স্থগিত করা হয়েছে। প্রদানমন্ত্রী টেরিজা মে'র সভাপতিত্বে সরকারের কোবরা কমিটির জরুরি বৈঠক ডাকা হয়েছে আরও পরের দিকে।

আরো পড়তে পারেন: ম্যানচেস্টার হামলা: আমেরিকান পপ গায়িকার 'হৃদয় ভেঙে গেছে'

ম্যানচেস্টারে কনসার্টে বিস্ফোরণে নিহত ১৯, 'সন্ত্রাসী হামলা' মনে করছে পুলিশ

'চারদিকে পুলিশ, বুঝলাম আমাদের টার্গেট করেছে'

সোমবার হামলাটি হয় তখন আমেরিকান পপ সিঙ্গার ২৩ বছর বয়সী আরিয়ানা গ্রান্দের কনসার্ট শেষ। তার অনুসারীরা যারা তাদের বেশিরভাগই টিনএজার।

ফলে অনেক অল্পবয়সী ছেলে-মেয়েরা সেখানে ছিলেন। নিহত ও আহতদের মধ্যে অনেক অল্প-বয়সী ছেলে-মেয়েরা থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

সম্পর্কিত বিষয়