যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টারে কনসার্ট হামলাকারী ব্রিটিশ নাগরিক সালমান আবেদি

  • ২৪ মে ২০১৭
সাফি রুসস এবং জর্জিনা ক্যালান্ডার
Image caption নিহত দুজন - ৮ বছরের সাফি রুসস এবং জর্জিনা ক্যালান্ডার

ব্রিটেনের পুলিশ জানিয়েছে ম্যানচেস্টার শহরের অ্যারেনায় সোমবার এক পপ কনসার্টের পর যে আত্মঘাতী বোমা হামলা চালানো হয়েছে, সেই হামলা, তাদের ধারণা, চালিয়েছে সালমান আবেদি নামে ব্যক্তি।

বাইশ বছরের এই হামলাকারীর জন্ম ম্যানচেস্টারে এবং তার পরিবার এসেছে লিবিয়া থেকে।

সোমবার রাতের এই হামলায় ২২ জন প্রাণ হারিয়েছে এবং ৫৯ জন আহত হয়েছে বলে বলা হচ্ছে।

এ পর্যন্ত তিনজন নিহতের নাম প্রকাশ করা হয়েছে। এদের মধ্যে সাফি রোজ রুসসের বয়স ৮ ।

ম্যানচেস্টারের পুলিশ বলছে সালমান আবেদি এই হামলা একা চালিয়েছে নাকী তার আরও কোনো সহযোগী ছিল সেটাই এখন তাদের অনুসন্ধানে অগ্রাধিকার পাচ্ছে।

ম্যানচেস্টারের অ্যালবার্ট স্কোয়ারে পৌরভবনের বাইরে মানুষজন নিহতদের স্মরণ করছে।

ধারণা করা হচ্ছে সালমান আবেদি অ্যারেনার প্রেক্ষাগৃহের চত্বরে ব্রিটিশ সময় রাত সাড়ে দশটার পর বোমা ফাটিয়ে আত্মঘাতী হয়।

সেসময় আমেরিকান সঙ্গীতশিল্পী আরিয়ানা গ্রান্দের কনসার্ট শেষে তার ভক্তরা হল ছেড়ে বেরতে শুরু করেছিল।

Image caption নিহত জন অ্যাটকিনসন

নিহত আট বছরের সাফি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিল। আর নিহত জর্জিনা কলেজ ছাত্রী।

আহতরা শহরের আটটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এদের মধ্যে ১৬র কমবয়সী ১২জন শিশু রয়েছে।

বহু মানুষ এখনও নিখোঁজ।

আরও পড়তে পারেন:

ব্রিটেনের সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী হামলাগুলো কীধরনের ছিল ?

ব্রিটেনে লন্ডন বোমা হামলার পর এটাই কি সবচেয়ে বড় হামলা?

ছবির কপিরাইট PA
Image caption ম্যানচেস্টারের কেন্দ্রে নিহতদের স্মরণ করতে মঙ্গলবার জড়ো হয়েছে হাজার হাজার মানুষ

প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে তার বাসভবন ডাউনিং স্ট্রিট থেকে এক বিবৃতিতে বলেছেন এই বোমা হামলা একটা "নির্মম সন্ত্রাসী হামলা" যার লক্ষ্য ছিল "অসহায় শিশু কিশোর।"

যুক্তরাজ্যে ২০০৫ সালে ৭ই জুলাই চালানো সন্ত্রাসী হামলার পর এটাই সবচেয়ে বড়ধরনের আত্মঘাতী হামলা। ২০০৫এর হামলায় মারা গিয়েছিল ৫২জন।

সম্পর্কিত বিষয়