যুক্তরাষ্ট্রের পোর্টল্যান্ডে 'মুসলিম-বিদ্বেষী'র ছুরিকাঘাতে দু'জন নিহত

  • ২৭ মে ২০১৭
ছবির কপিরাইট সিবিএস/ইভিএন
Image caption হলিউড ট্রানজিট স্টেশনে ঘটনার পর পুলিশের তৎপরতা

যুক্তরাষ্ট্রের পোর্টল্যান্ড শহরে দৃশ্যত: মুসলিম দুই মহিলাকে গালাগালি করার সময় এক ব্যক্তিকে থামাতে গেলে তার ছুরিকাঘাতে দু'জন লোক নিহত হয়েছেন।

পুলিশ বলছে, গতকাল বিকেলে হলিউড ট্রানজিট স্টেশনে একটি ট্রেনে এ ঘটনা ঘটে।

আক্রমণকারীর ছুরির আঘাতে একজন ঘটনাস্থলে এবং আরেকজন হাসপাতালে নেবার পর মারা যান। লোকটিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে, তবে তার আগে সে আরো একজন লোককে ছুরি মেরে আহত করে।

পুলিশের বিবৃতিতে বলা হয়, লোকটি চিৎকার করে এমন সব কথা বলছিল যাকে 'ঘৃণাসূচক বক্তব্য' বলা যায়। তার এসব কথার লক্ষ্য ছিল দু'জন মহিলা - যাদের একজন কৃষ্ণাঙ্গ এবং অপরজনের মাথায় হিজাব পরা ছিল।

দুই মহিলার একজনের মা পরে জানিয়েছেন, আক্রমণকারী লোকটি তাদের উদ্দেশ্য করে বলছিল 'মুসলিমদের মরা উচিত - কারণ তারা বহু বছর ধরেই খ্রিস্টানদের হত্যা করে চলেছে।'

বিবিসি বাংলায় আরো পড়ুন:

গণভবনের সামনের মিসফায়ারে পুলিশের মৃত্যু

ভাস্কর্য সরানো সম্পর্কে যা বললেন মৃণাল হক

সাভারে জঙ্গী আস্তানায় অভিযান : কি বলছে পুলিশ

কবুতরের পিঠে ব্যাগ বেঁধে মাদক পাচার!

ছবির কপিরাইট উইকিম্যাপিয়া
Image caption পোর্টল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্রের মানচিত্রে

এসব কথার মধ্যে কয়েকজন লোক তার দিকে এগিয়ে যায় এবং তাকে থামাতে চেষ্টা করে। তখন লোকটি ছুরি বের করে আক্রমণ করে। এতে দুজন নিহত এবং একজন আহত হয়।

মহিলা দুজনের সাথে পুলিশ কথা বলার আগেই তারা ট্রেন থেকে নেমে যায়।

আক্রমণকারী ট্রেন থেকে বের হবার পর পুলিশ তাকে ছুরিসহ আটক করে।

যুক্তরাষ্ট্রের কাউন্সিল ফর আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশন্স বলছে, সেদেশে ইসলামভীতি যেভাবে বাড়ছে - তার বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কথা বলা উচিত।

কাউন্সিল বলেছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নীতি ও কথাবার্তার কারণে এই প্রবণতা আরো জোরদার হচ্ছে।

সম্পর্কিত বিষয়