বুরুন্ডিতে আদেশ: 'একসাথে থাকতে হলে বিয়ে করতে হবে'

  • ২৮ মে ২০১৭
ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption বিয়ে ছাড়া একসাথে থাকায় জনসংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে - বলছে সরকার

মধ্য আফ্রিকান রাষ্ট্র বুরুন্ডিতে যেসব যুগল বিয়ে না করেই একসাথে বসবাস করছেন - তাদেরকে এ বছর শেষ হবার আগেই বিয়ে করার আদেশ দিয়েছে সরকার।

যারা এ নির্দেশ অমান্য করবেন তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে সরকার।

দেশটির প্রেসিডেন্ট পিয়ের এনকুরুনজিজা সম্প্রতি 'সমাজের নৈতিকতা প্রতিষ্ঠার' যে অভিযান শুরু করেছেন তার আওতাতেই এ পদক্ষেপ।

তিনি বলেন, স্কুলে পড়া মেয়েদের গর্ভবতী হয়ে পড়ার ঘটনা খুব বেশি বেড়ে গেছে। অনেক পুরুষ বর্তমান অবস্থার সুযোগ নিচ্ছে - তারা একই সাথে একাধিক মেয়ের সঙ্গে থাকছে।

সরকারের একজন মুখপাত্র বলেছেন, জনসংখ্যা বিস্ফোরণ ঠেকানোর জন্য অনানুষ্ঠানিক সম্পর্কের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া দরকারি হয়ে পড়েছে।

প্রেসিডেন্ট মি. এনকুরুনজিজা একজন নব্যরক্ষণশীল (বর্ন-এগেইন) খ্রিষ্টান।

আরও পড়ুন: ভারতে জবাইয়ের জন্য গরুমহিষ বাজারে বিক্রি বন্ধ

গণভবনে ডিউটির সময় 'মিসফায়ারে' পুলিশের মৃত্যু

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলেছেন গীর্জা এবং রাষ্ট্র-অনুমোদিত বিয়েই জনসংখ্যা বিস্ফোরণ ঠেকানোর উপায় এবং এটি দেশপ্রেমিকদের একটি কর্তব্যও বটে।

তবে এ আইন যারা ভঙ্গ করবে তাদের কি শাস্তি হবে তা স্পষ্ট নয়।

পিয়ের নামে একজন কৃষক - যিনি বিয়ে না করেও তার প্রেমিকার সাথে থাকছেন - বলেছেন, তাকে স্থানীয় কর্মকর্তারা ইতিমধ্যেই তাদের জরিমানার হুমকি দিয়েছেন, এবং বলেছেন, বিয়ে ছাড়া তাদের সন্তান হলে সে বিনামূল্যে শিক্ষা বা চিকিৎসার সুযোগ পাবে না।

সম্পর্কিত বিষয়