ইন্দোনেশিয়ায় বিতর্কিত এক মুসলিম নেতার বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফির মামলা

  • ৩০ মে ২০১৭
ইন্দোনেশিয়ার উগ্রপন্থী সংগঠন ইসলামিক ডিফেন্ডার্স ফ্রন্ট বা এফপিআই-এর প্রধান রিজিয়েক শিহাব। ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption ইন্দোনেশিয়ার উগ্রপন্থী সংগঠন ইসলামিক ডিফেন্ডার্স ফ্রন্ট বা এফপিআই-এর প্রধান রিজিয়েক শিহাব।

ইন্দোনেশিয়ায় বিতর্কিত একজন মুসলিম নেতা রিজিয়েক শিহাবের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা করেছে দেশটির পুলিশ।

স্থানীয় পুলিশ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে একজন নারী মানবাধিকার কর্মীর সঙ্গে পর্নো ছবি ও ভিডিও আদান-প্রদান করেছেন এমন অভিযোগ রয়েছে রিজিয়েক শিহাবের বিরুদ্ধে ।

যদিও ওই ধর্মীয় নেতা তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন, তিনি এখন সৌদি আরবে বসবাস করছেন।

ইন্দোনেশিয়ার উগ্রপন্থী সংগঠন ইসলামিক ডিফেন্ডার্স ফ্রন্ট বা এফপিআই-এর প্রধান রিজিয়েক শিহাব। এ সংগঠনটিই ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তার জনপ্রিয় সাবেক গভর্নর বাসুকি জাহাজা আহকের বিরুদ্ধে ব্লাসফেমির অভিযোগ তুলেছিল।

গত মাসেই ব্লাসফেমি আইনে মি: আহকের কারাদণ্ডের রায় হয়।

এদিকে উসকানিমূলক মন্তব্যের মাধ্যমে জনশৃঙ্খলা ব্যাহত এবং সহিংস পরিস্থিতি সৃষ্টির অভিযোগে এর আগে মি: রিজিয়েকের দুইবার কারাদণ্ড হয়েছিল।

তবে এই প্রথম মি: রিজিয়েকের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা হলো। ইন্দোনেশিয়ায় কঠোর পর্নোগ্রাফি আইন রয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়েছে, নারী অ্যাক্টিভিস্ট ফির্জা হুসেইনের সঙ্গে পর্নোগ্রাফি বিষয়ক বার্তা, ছবি ও ভিডিও আদান-প্রদান করেছেন এবং ইন্দোনেশিয়ার পর্নোগ্রাফি আইন ভঙ্গ করেছেন মি: রিজিয়েক। ফির্জা হুসেইনের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ আনা হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ার পুলিশ চলতি বছরের এপ্রিল মাস থেকে বেশ কয়েকবার মি: রিজিয়েককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকলেও তাতে তিনি সাড়া দেননি। এপ্রিলের শেষ দিক থেকে তিনি সপরিবারে সৌদি আরবে বাস করছেন।

আরো পড়ুন:

ঘূর্ণিঝড় 'মোরা' সম্পর্কে কী জানা যাচ্ছে?

পোপ ফ্রান্সিসকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানালেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী

‘আমরাতো নি:স্ব হয়ে গেলাম, ঘরবাড়ি সব গেল’

সম্পর্কিত বিষয়