'প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান জঙ্গিবাদ প্রচারের নিরাপদ জায়গা করে দিচ্ছে'

  • ৫ জুন ২০১৭
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে ছবির কপিরাইট পিএ
Image caption ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে

লন্ডন হামলার পর বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে জঙ্গি ইসলামী মতাদর্শ প্রচারের নিরাপদ জায়গা করে দেবার অভিযোগ এনেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে।

সাইবার স্পেসে অনেক সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা হয়, এমন অভিযোগ তুলে মিসেস মে বলছেন, এ ধরণের কর্মকাণ্ড বন্ধে বহুপাক্ষিক আন্তর্জাতিক চুক্তি থাকা প্রয়োজন।

অভিযোগ কবুল করে জবাবে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগল বলেছে, এ সমস্যা নিরসনে কোম্পানীটি ইতিমধ্যেই কয়েকশ' মিলিয়ন ডলার খরচ করেছে।

ফেসবুক বলছে, তাদের সাইটে কোন ধরণের সন্ত্রাসী প্রচারণা নজরে পড়া মাত্র তাৎক্ষনিকভাবে তা নিজেদের ওয়েবসাইট থেকে মুছে দিতে অক্লান্তভাবে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, যারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালায় তাদের জন্য ওয়েবসাইটটিকে তারা কঠিন একটি জায়াগায় পরিণত করতে চায়।

বিশ্বের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর বেশিরভাগই একমত যে, মেসেজিং অ্যাল্পিকেশনগুলোর এনক্রিপশনকে দুর্বল করার যে প্রস্তাব নিরাপত্তা সংস্থাগুলো দিয়েছে, তাতে ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তার অধিকার ক্ষুণ্ণ হবে।

তবে, ঠিক এ কারণেই সন্ত্রাসী অনেক কর্মকাণ্ডের পরিকল্পনা নিরাপদে এবং গোপনীয়তার সঙ্গে করা যায় বলে অভিযোগ ওঠে।

আরো পড়ুন:

ইসলামী চরমপন্থা মোকাবেলার কথা বলছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

লন্ডন হামলা: এখন পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে

সম্পর্কিত বিষয়