চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে পৌঁছাতে বাংলাদেশের সম্ভাবনা কতটা?

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption বৃষ্টির কারণে পয়েন্ট ভাগাভাগির পর এখন বাংলাদেশের সামনে সেমি-ফাইনালে যাওয়ার সম্ভাবনা উঁকি দিচ্ছে। তবে সবকিছু নির্ভর করবে পরবর্তী তিনটি ম্যাচের ফলাফলের ওপর।

আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে গতকাল ওভালে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচের মূল খেলাটা খেলেছে বৃষ্টি।

কারণ বাংলাদেশের ১৮২ রানের জবাবে অস্ট্রেলিয়া যখন অনেকটাই জয়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তখন বৃষ্টির বাধা। এরপর অপেক্ষা। তবে শেষ পর্যন্ত খেলা আর মাঠে গড়াতে পারেনি।

মাঠে ছিলেন বিবিসি বাংলার শাকিল আনোয়ার। তিনি বলেন, বৃষ্টির কারণে পয়েন্ট ভাগাভাগির পর এখন বাংলাদেশের সামনে সেমি ফাইনালে যাওয়ার সম্ভাবনা উঁকি দিচ্ছে।

কিন্তু সেজন্য রয়েছে বেশকিছু হিসাব-নিকাশ। কারণ বাংলাদেশের এই আসরে ভবিষ্যত নির্ভর করবে পরবর্তী তিনটি ম্যাচের ফলাফলের ওপর।

আরো পড়ুন

কাতার সম্পর্কে পাঁচটি বিস্ময়কর তথ্য

"আজ যে ম্যাচটি হবে সেখানে ইংল্যান্ড যদি নিউজিল্যান্ডকে হারায় এবং পরের ম্যাচে যদি অস্ট্রেলিয়াকে ইংল্যান্ড হারায় এবং বাংলাদেশ যদি তাদের পরবর্তী ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে হারাতে পারে তাহলে ইংল্যান্ড ও বাংলাদেশ যাবে পরের রাউন্ডে অর্থাৎ সেমিফাইনালে। আবার ইংল্যান্ড যদি নিউজিল্যান্ড বা অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে যায় তাহলে হিসেব বদলে যাবে" বলেন শাকিল আনোয়ার।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তামিম ইকবাল ৯৫ রান করেন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও খেলেছিলেন ১২৮ রানের ইনিংস।

গতকাল ওভালে বাংলাদেশের খেলা দেখতে মাঠে হাজির ছিলেন প্রায় ২০ হাজারের মত সমর্থক। তবে বাংলাদেশের ব্যার্টিং পারফর্ম্যান্স তাদের জন্য ছিল হতাশাজনক।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ৪৪ ওভার ৩ বল খেলে মাত্র ১৮২ রান করে আউট হয়ে যায় বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা।

ব্যাটিং করতে নেমে ভালই জবাব দিচ্ছিল অস্ট্রেলিয়া দল। কিন্তু ১৬ ওভারে তাদের সংগ্রহ যখন ৮৩ রান তখন বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত পরিত্যক্ত হয় ম্যাচটি।

বাংলাদেশের সমর্থকরা ওভালে হতাশ হয়েছেন বলে জানান শাকিল আনোয়ার।

তিনি জানান, যে মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩০৫ রান করেছিল, সেখানে স্কোর এত কম হওয়ার কারণ 'আবহাওয়া'।

এই সুযোগটা অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা কাজে লাগিয়েছেন। সেখানে তামিম ইকবাল ছাড়া বাংলাদেশের আর কেউই দাঁড়াতে পারেননি।

সোমবারের ম্যাচে তামিম ইকবাল বাংলাদেশের পক্ষে সবোর্চ্চ ব্যক্তিগত ৯৫ রান করেন ১১৪ বল খেলে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি সংগ্রহ করেছিলেন ১২৮ রান।

সম্পর্কিত বিষয়