মাঠে ময়দানে: বৃষ্টিতে ধুঁকছে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি
আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

মাঠে ময়দানে: বৃষ্টিতে ধুঁকছে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

অস্ট্রেলিয়া চলতি আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ফেভারিট হিসাবে এসেছিল। কিন্তু সাতদিন পর সন্দেহ দেখা দিয়েছে তারা আদৌ গ্রুপ স্টেজ পেরিয়ে সেমিফাইনালেই যেতে পারবে কিনা। কারণ - বৃষ্টি।

প্রথমে নিউজিল্যান্ডের সাথে ম্যাচ এবং পরে বাংলাদেশের সাথে ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছে। ফলে দুটো ম্যাচেই পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে। বৃষ্টিতে বিঘ্নিত হয়েছে এজবাস্টনে ভারত পাকিস্তানের ম্যাচটিও। জুন মাসের ইংল্যান্ডে আরও যে এমন অঘটনা ঘটবে না, হলফ করে কেউই তা বলতে পারছেন না।

প্রশ্ন উঠেছে জুন মাসে ইংল্যান্ডের এ ধরণের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট টুর্নামেন্টের সিদ্ধান্ত কি ঠিক হয়েছে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল ইসলাম বুলবুল মনে করেন সিদ্ধান্ত যথার্থ হয়নি।

কলকাতার ক্রিকেট লেখক গৌতম ভট্টাচার্য বিবিসিকে বাংলার কাছে মন্তব্য করেন - এটাকে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি না বলে, ডাকওয়ার্থ লুইস টুর্নামেন্ট বলা উচিৎ।

"বিশ্বপর্যায়ের টুর্নামেন্ট যদি ইংল্যাডে জুন মাসে করতেই হয়, তাহলে সেটি ভাগ্যের হাতে ছেড়ে দেওয়া উচিৎ নয়...বৃষ্টির খামখেয়ালিপনার কারণে ক্রিকেট দক্ষতা মার খেয়ে যাচ্ছে।"

আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলছেন, জুনের মাঝামাঝি পর্যন্ত বৃষ্টির কারণে যে ক্রিকেট সঙ্কটে পড়ে এটা সবারই জানা। তিনি বলেন, ২০১৯ সালে বিশ্বকাপের আগে অবশ্যই ইংল্যান্ড এবং আইসিসিকে বিষয়টি ভাবতে হবে। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের আগে অন্তত দুটি ছাদওয়ালা ক্রিকেট মাঠ করা কঠিন কিছু নয় বলে তিনি মন্তব্য করেন।

Image caption 'বিশ্ব ক্রিকেটের নতুন এক্স ফ্যক্টর বাংলাদেশ'- কলকাতার ক্রিকেট লেখক গৌতম ভট্টাচার্য

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ কি আকর্ষণ হারাচেছ?

এজবাস্টনে ভারত-পাকিস্তানের বৃষ্টি-বিঘ্নিত ম্যাচটি হয়েছে বলতে গেলে একতরফা। পাকিস্তানের বোলারদের হাত খুলে পিটিয়েছেন ভারতের ব্যাটসম্যানরা।

সাম্প্রতিক সময়ে ভারতের বিরুদ্ধে টি-২০ বা একদিনের ক্রিকেটে পাকিস্তানের যে পারফরমেন্স , তাতে দুই দেশ খেললে আর কতদিন তা নিয়ে মানুষের প্রবল আগ্রহ থাকবে?

গৌতম ভট্টাচার্য মনে করেন, আইপিএলের কারণে ভারতীয় ক্রিকেটাররা সীমিত ওভার ক্রিকেটে অসামান্য উন্নতি করেছেন। "ইমরান খান এবং জাভেদ মিয়াদাদ পর্যন্ত তা স্বীকার করেছেন। ক্রিকেটাররা চাপ নিতে অভ্যস্ত হয়ে গেছে।"

তবে আমিনুল ইসলাম বুলবুল মনে করেন এখনও ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বিশ্ব ক্রিকেটের সেরা ডারবি। এ কারণে এখনও আইসিসি যে কোন ফিক্সচারে কোনো ঝুঁকি না নিয়ে গ্রুপ স্টেজেই ভারত-পাকিস্তানকে খেলায়।

একইসাথে, মি বুলবুল মনে করেন, জনপ্রিয়তার বিচারে ধীরে ধীরে ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচ ভারত-পাকিস্তানের ম্যাচের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। "বিশ্ব ক্রিকেটের জন্য এটা নতুন একটি সুসংবাদ।"

ছবির কপিরাইট আমিনুল ইসলাম বুলবুল (ফেসবুক)
Image caption ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচের জনপ্রিয়তা এখন ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের কাছাকাছি - আমিনুল ইসলাম বুলবুল

বিশ্ব ক্রিকেটের এক্স ফ্যাক্টর এখন বাংলাদেশ?

চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে বাংলাদেশের সমর্থকরা মাঠে যেভাবে দলকে সমর্থন দিচ্ছেন তাতে বিস্মিত হয়েছেন অনেকেই।

লন্ডন ব্রিজের ঘটনার পর লন্ডন জুড়ে যে হতাশা আর আতঙ্কের আস্তরণ ছিল, তাকে অবজ্ঞা করে, বৃষ্টিকে অবজ্ঞা করে যেভাবে ১২ হাজার বাংলাদেশী সমর্থক অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচের দিন ওভালে হাজির হয়েছিলেন তা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন গৌতম ভট্টাচার্য।

"আমরা কলকাতায় এখন বলি সর্বকালের সেরা ক্রিকেট সমর্থকদের মধ্যে যদি তুলনা করতে হয়, তাহলে আশির দশকের ইডেন গার্ডেনসের দর্শক এবং আধুনিক কালের বাংলাদেশের ফ্যানদের মধ্যে তুলনা করতে হবে।"

"সমর্থকরা বাংলাদেশর ক্রিকেটকে জীবন্ত করে দিয়েছেন...বিশ্ব ক্রিকেটের এক্স ফ্যাক্টর এখন বাংলাদেশ।"

আরো বাকি চ্যাম্পিয়নস ট্রফির। অনেক কিছু হতে পারে । তারপরও ট্রফি কার হাতে যাবে?

গৌতম ভট্টাচার্য মনে করেন, বৃষ্টির ফাঁড়া কাটিয়ে অস্ট্রেলিয়া যদি সেমিফাইনালে পৌঁছে, তাহলে ট্রফি অসিদের।

তবে আমিনুল ইসলাম বুলবুলের কাছে এক নম্বর দাবিদার ভারত।

শাকিল আনোয়ার, বিবিসি বাংলা