'মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যেই' লংগদুর নয়নকে হত্যা: পুলিশ

Image caption লংগদুতে গত ২রা জুলাই পাহাড়দের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়

রাঙ্গামাটির লংগদুর নিহত যুবলীগ নেতা নুরুল ইসলাম নয়নকে তার মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ের জন্যই হত্যা করা হয়েছিল বলে জানাচ্ছে খাগড়াছড়ির পুলিশ।

এই ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে রমেল চাকমা এবং জুয়েল চাকমা নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ বলছে, তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার মাইনি নদীতে ডুবুরিরা অভিযান চালিয়ে মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করেছে।

দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শামসুদ্দিন ভূঁইয়া জানান, গত ১লা জুন ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যেই নুরুল ইসলামের মোটরসাইকেলটি ভাড়া করা হয় এবং পরবর্তীতে তাকে হত্যা করা হয় বলে প্রাথমিকভাবে তারা নিশ্চিত হয়েছেন।

গ্রেপ্তারকৃত দুজনের মধ্যে একজন লংগদু এবং অপরজন দীঘিনালার বাসিন্দা বলে জানাচ্ছে পুলিশ। তারা বলছে, এই ঘটনার সাথে আরো একজন জড়িত রয়েছে, তবে তার নাম এখনো প্রকাশ করা হয়নি।

মোটরসাইকেল ছিনতাইয়ে বাধা দেয়ায় নুরুল ইসলামকে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয় বলে পুলিশ জানাচ্ছে।

ছিনতাইয়ের পর মোটরসাইকেলটি কয়েকদিন হামলাকারীদের কাছেই ছিল। পরে অবস্থা বেগতিক দেখে সেটি মাইনি নদীতে ফেলে দেয়া হয়।

নুরুল ইসলামের হত্যাকে কেন্দ্র করে গত ২রা জুলাই বাঙ্গালিদের একটি মিছিল থেকে পাহাড়িদের শতাধিক বাড়িঘর জ্বালিয়ে দেয়া হয়।

সম্পর্কিত বিষয়