তাড়া করবে ভারত, কিন্তু কতটা সঠিক কোহলি?

. ছবির কপিরাইট Charlie Crowhurst
Image caption লন্ডনের ওভালের মাঠে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে ভারত-পাকিস্তানের লড়াই

ধারণা মত চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে টসে জিতে পাকিস্তানতে তাড়া করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভারতের অধিনায়ক ভিরাট কোহলি।

অধিকাংশ বিশ্লেষক এই সিদ্ধান্তের কথাই ধারনা করছিলেন, কারণ ব্যাটিং ভারতের প্রধান শক্তি এবং সে কারণে তাড়া করেই জেতাই তাদের কৌশল । সেমিফাইনালেও বাংলাদেশের বিরুদ্ধেও তারা সেটাই করেছে।

কিন্তু পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইমরান খান ম্যাচের আগে এক টুইট করে অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদকে পরামর্শ দিয়েছিলেন টসে জিতলে ব্যাটিং নিতে।

ইমরান টুইটারে লেখেন - "পাকিস্তানের শক্তি বোলিং, ভারতের ক্ষেত্রে তা ব্যাটিং। সরফরাজের প্রতি আমার পরামর্শ প্রথমে ব্যাট করতে এবং মোটামুটি একটা বড় রান তোলার চেষ্টা করতে।"

ক্রিকইনফো ইন্ডিয়ার প্রধান সম্পাদক শমিত বাল ভিরাট কোহলির সিদ্ধান্ত টুইট করেছেন - "ভারত যা চেয়েছিলো তাই পেয়েছে ,কিন্তু রান ডিফেন্ড করা পাকিস্তানের প্রধান দুর্বলতা নয়।"

আরও পড়ুন:মির্জা ফখরুলের গাড়িবহরে 'হামলা'র অভিযোগ

পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা কত রান তুলতে পারেন তার ওপর নির্ভর করবে কোহলির সিদ্ধান্ত অব্যর্থ ছিলো কিনা।

কাগজে কলমে ভারত আজকের ফাইনালে ফেভারিট।

আইসিসি'র ওডিআই র‍্যাঙ্কিং এ ভারত যেখানে তিন নম্বরে, পাকিস্তানের অবস্থান আট যা বাংলাদেশেরও নীচে।

এছাড়া, চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে পাকিস্তান এখন পর্যন্ত তারা ভারতকে হারাতে পারেনি। এমনকী চলতি টুর্নামেন্টেও একবার তারা ১২৪ রানের বিশাল ব্যবধানে ভারতের কাছে হেরেছে।

তবে অন্যতম আন্ডারডগ হিসাবে টুর্নামেন্ট শুরু করে এবং প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে বাজেভাবে হেরেও পাকিস্তান যেভাবে ফাইনালে উঠে এসেছে, তাতে ক্রিকেট জগতের অনেকেই বিস্মিত হয়েছেন।

পাকিস্তানের কামব্যাকে বিস্ময় চেপে রাখেননি ভিরাট কোহলিও। বলেছেন, "তাদের দিনে পাকিস্তানে এখনো যে কোনো দলকে হারানোর ক্ষমতা রাখে।"

বিশেষ করে গত দুটি ম্যাচে পাকিস্তানের সিম বোলাররা - হাসান আলী, জুনাইদ খান এবং মোহাম্মদ আমীর - ম্যাচ জেতানো পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন তাতে আজকের ফাইনালে পাকিস্তানকে আজ আর কেউ আন্ডারডগ বলছেন না।

সম্পর্কিত বিষয়