কাতারের হাজার হাজার উট-ভেড়া বহিস্কার করলো সৌদি আরব

উটের পাল সৌদি আরব থেকে কাতারে ফিরে আসছে। ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption উটের পাল সৌদি আরব থেকে কাতারে ফিরে আসছে।

সৌদি আরব বলেছে, তাদের পশু চারণ ভূমি থেকে কাতারের সব উট এবং ভেড়া সরিয়ে নিতে হবে। দু দেশের মধ্যে তীব্র উত্তেজনার মধ্যে সৌদি আরব এই সর্বশেষ পদক্ষেপ নিল।

ইতোমধ্যে পনের হাজার উট এবং দশ হাজার ভেড়া সীমান্ত অতিক্রম করে কাতারে ফিরে এসেছে।

ফিরে আসা উট এবং ভেড়ার পালের জন্য কাতার একটি জরুরী আশ্রয় কেন্দ্র খুলেছে। সেখানে পানি এবং পশু খাদ্যের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

কাতার যেহেতু একেবারে ছোট একটি দেশ, তাই অনেক কাতারি তাদের উট এবং ভেড়া সৌদি আরবের বিভিন্ন চারণভূমিতে নিয়ে রাখে।

এ মাসের শুরুতে সৌদি আরব সহ কয়েকটি উপসাগরীয় দেশ কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করে। কাতার ইসলামি জঙ্গীবাদকে মদত দিচ্ছে অভিযোগ তুলে তারা এই পদক্ষেপ নেয়।

কাতার অবশ্য এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে।

আরও পড়ুন : সাদ্দামের ফাঁসির সময়ে কেঁদেছিলেন যে মার্কিন সৈন্যরা

কাতারের পৌর এবং পরিবেশ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ফিরে আসা উট এবং ভেড়ার পালের জন্য নতুন জায়গা খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত তাদের অস্থায়ী আশ্রয় শিবিরেই রাখা হবে।

কাতারের একজন কর্মকর্তা জানান,এ পর্যন্ত প্রায় ২৫ হাজার উট এবং ভেড়া সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে সাম্প্রতিক সময়ে পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ভেড়া এবং উটের পাল সীমান্ত অতিক্রম করে কাতারে ঢুকছে।

কাতারি পশু পালকরা সৌদি আরবের এই পদক্ষেপে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। আলী মাগারেহ নামে একজন রয়টার্সকে বলেন, "আমরা এসব রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হতে চাই না। আমরা মোটেই খুশি নই।"

Image caption .

সম্পর্কিত বিষয়