কাবার ফটোশপ করা অশ্লীল ছবির প্রতিবাদে অশান্ত পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাট

ছবির কপিরাইট .
Image caption বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া বশিরহাটে এই অবরোধ চলছে

কাবাঘর নিয়ে একটি ফটোশপ করা অশ্লীল ছবি ফেসবুকে পোস্ট করায় এক কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ।

কিন্তু ওই ছবি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পরে তা থেকে ব্যাপক অশান্তি ছড়িয়েছে বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া বসিরহাট অঞ্চলে।

পুলিশ বলছে, বাদুড়িয়া, দেগঙ্গা, স্বরূপনগর আর বসিরহাট এলাকাগুলিতে সোমবার সন্ধ্যা থেকেই অশান্তি শুরু হয়। বহু মানুষ রাস্তা আর রেল অবরোধ করে থাকেন অনেক রাত পর্যন্ত।

বিভিন্ন মুসলিম সংগঠনের নেতারা অবরোধকারীদের বোঝাতে থাকেন যে অভিযুক্ত কিশোরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, কাজেই তারা যেন অবরোধ তুলে নেন।

কিন্তু নেতাদের কথা শোনেন নি ওই অবরোধকারীরা।

রাতে অবরোধকারীদের বুঝিয়ে শুনিয়ে সরিয়ে দেওয়া গেলেও আজ সকাল থেকে ফের অশান্তি শুরু হয়।

নানা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হতে থাকে। সবথেকে বেশী অশান্তি হয়েছে বাদুড়িয়া এলাকায়।

বেশ কয়েকটি বাড়ি ও গাড়ী ভাঙ্গচুর করা হয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পুলিশ সুপারিন্টেডেন্টের গাড়িও।

সন্ধ্যায় বি এস এফের চারটি কোম্পানি বসিরহাট সংলগ্ন চারটি থানা এলাকায় নামানো হয়েছে। কলকাতা আর হাওড়া থেকেও পুলিশ বাহিনী গেছে বলে রাজ্য পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption এ ঘটনা নিয়ে বাদানুবাদ হয়েছে রাজ্যপালের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলছেন এই সব বিক্ষোভকারীদের আসলে কোনও নেতৃত্ব নেই। সামাজিক মাধ্যমে নানা ছবি আর গুজব ছড়িয়ে পড়ায় তারা বারে বারে অশান্ত হয়ে উঠছে। ধর্মীয় বা সামাজিক নেতাদের কথাও এরা শুনছে না।

গুজব না ছড়ানোর জন্য গণমাধ্যম ও সামাজিক মাধ্যমে নানা পোস্ট করা হচ্ছে সারা দিন ধরে।

রাত আটটা পর্যন্ত পাওয়া খবরে জানা যাচ্ছে, পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আনতে সমর্থ হয়েছে প্রশাসন।

অন্যদিকে বাদুড়িয়ার অশান্তি নিয়ে আজ এক অভূতপূর্ব বাদানুবাদ হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী ও রাজ্যপাল কেশরী নাথ ত্রিপাঠির মধ্যে।

মমতা ব্যানার্জী অভিযোগ করেছেন বাদুড়িয়ার অশান্তি নিয়ে রাজ্যপাল তাঁকে অত্যন্ত অপমান করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন ডেকে এও বলেন যে রাজ্যের নির্বাচিত প্রশাসক তিনি - রাজ্যপালের কোনও অধিকার নেই এইভাবে তাঁকে অসম্মান করার। তবে রাজ্যপালের আবাস থেকে জানানো হয়েছে যে মি. ত্রিপাঠি মুখ্যমন্ত্রীকে অসম্মান করার মতো কিছু বলেন নি।

আরো পড়তে পারেন:

বিয়ে রুখতে নিজের হাত কাটলেন নবম শ্রেণীর বিথী

'আমাকে যারা নিন্দা করেন, আমি তাদের উপভোগ করি'

আরব তেল অবরোধ যেভাবে কাঁপিয়ে দিয়েছিল বিশ্ব