বনানীতে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব

জন্মদিনের কথা বলে বনানীতে আবার এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে

বাংলাদেশের ঢাকায় বনানীতে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় অভিযুক্ত বাহাউদ্দিন ইভানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

র‍্যাবের মুখপাত্র মুফতি মাহমুদ খান বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, নারায়ণগঞ্জ শহর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এখন অভিযোগের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

জন্মদিনের' কথা বলে বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে বুধবার বাহাউদ্দিন ইভানের বিরুদ্ধে মামলা করে ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী।

মামলার বরাত দিয়ে বনানী থানার পুলিশ জানিয়েছিল, অভিযুক্ত ব্যক্তি সপরিবারে বনানীতে থাকেন। মঙ্গলবার রাতে জন্মদিনের অনুষ্ঠানের কথা বলে পূর্বপরিচিত ওই তরুণীকে তার বাসায় ডেকে আনেন। রাত দেড়টার দিকে তাকে ধর্ষণ করেন এবং তিনটার দিকে বাসা থেকে বের করে দেন। এ সময় ওই বাসায় আর কেউ ছিল না।

এরপর সকালে ওই তরুণী বনানী থানায় যান এবং দুপুর নাগাদ ধর্ষণের মামলা করেন।

বনানী থানার পরিদর্শক(তদন্ত) আবদুল মতিন বিবিসিকে জানিয়েছেন, "এ ঘটনার পর বাসা থেকে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি পালিয়ে গেছেন। আমরা তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছি"।

পুলিশ বলছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই তরুণীর সঙ্গে ব্যবসায়ীর পরিচয় হয়। এরপর বিভিন্ন সময়ে দেখা-সাক্ষাতও হয়েছে।

মামলার পর ভিকটিম তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়। এরপর থেকে তাকে তেজগাঁওয়ের উইমেন ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে।

কিছুদিন আগেই বনানীর রেইনট্রি হোটেলে জন্মদিনের কথা বলে আটকে রেখে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয় বলে বনানী থানায় মামলা হয়। ব্যাপক আলোচনার মধ্যে আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সম্প্রতি ওই মামলার অভিযোগপত্র দিয়েছে পুলিশ।

আরো পড়তে পারেন:

ঢাকার যে রেস্টুরেন্টে বিদেশি প্রবেশ নিষিদ্ধ

'অনেক মানুষকে গোপনে আটকে রেখেছে নিরাপত্তা বাহিনী'

যে পাঁচটি কারণে পোল্যান্ড গেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

প্রেমে আর যৌনতায় আগ্রহ হারাচ্ছে জাপানী তরুণরা

সম্পর্কিত বিষয়