সমলিঙ্গের বিয়েতে সমর্থন দিল মাল্টা

সমলিঙ্গের বিয়ে নিয়ে আইন পাশ হবার পর মানুষের উচ্ছ্বাস। ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption সমলিঙ্গের বিয়ে নিয়ে আইন পাশ হবার পর মানুষের উচ্ছ্বাস।

সমলিঙ্গের বিয়েতে সমর্থন দিয়েছে মাল্টার পার্লামেন্ট, এর ফলে ইউরোপিয় ইউনিয়নের পনেরোতম দেশ হিসেবে সমলিঙ্গের বিয়েতে সমর্থন দিল।

ক্যাথলিক অধ্যুষিত দেশটির পার্লামেন্টে সর্বসম্মতিক্রমে সেটি পাশ হয়।

প্রধানমন্ত্রী জোসেফ মাসকাটের প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে এই পদক্ষেপ নেয়া হলো।

পার্লামেন্টে পাশ হওয়া নতুন এই আইনে 'স্বামী' এবং 'স্ত্রী' শব্দ দুটির বদলে লিঙ্গ নিরপেক্ষ শব্দ 'জীবনসঙ্গী' ব্যবহার করা হচ্ছে।

এছাড়াও 'মা' ও 'বাবা'র বদলে 'যে অভিভাবক জন্ম দিয়েছে' এবং 'যে অভিভাবক জন্ম দিয়েছে' শব্দ দুটি ব্যবহার করা হচ্ছে।

এই আইনটি পাশ হওয়া ক্যাথলিক অধ্যুষিত মাল্টার জন্য একটি 'মাইলস্টোন' হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। ২০১১ সালে ডিভোর্সের বিষয়ে বৈধতা দেয় দেশটি।

গত মাসে দেশটিতে পুননির্বাচিত হওয়া প্রধানমন্ত্রী জোসেফ মাসকাটের নির্বাচনীপ্রতিশ্রুতির অন্যতম একটি ছিল দেশটির বিবাহ সম্পর্কিত আইনটিতে পরিবর্তন আনা ও সমলিঙ্গের বিয়ে বৈধ ঘোষণা করা।

আইনটি পার্লামেন্টে পাশ হবার পর মি: মাসকাট বলেন "এটা একটা ঐতিহাসিক ভোট। আমাদের গণতন্ত্র ও সমাজ যে উচ্চতায় ভিন্ন একটি স্তরে প্রবেশ করেছে এই আইনটির মাধ্যমে তা প্রকাশ পায়। আমরা সবাই সমান-পৃথিবীকে এই বার্তা দিতে পারবো এখন"।

এই আইনের বিরোধী ছিল ক্যাথলিক চার্চ।

কিন্তু পার্লামেন্টের ভোটাভুটিতে যে ৬৭ জন সদস্য ভোট দিয়েছেন তার মধ্যে একটি ভোটই শুধু সংস্কার বিপরীতে ছিল। বাকি সবাই এই সংস্কার আইনের পক্ষে ছিলেন।

আরো পড়ুন:

পৃথিবীর সব চেয়ে আলসে দেশ কোনগুলো?

রাশিয়া চেয়েছিল হিলারি ক্লিনটন নির্বাচিত হোক: ট্রাম্প

কাতারকে বিশ্বাস করতে পারছে না সৌদি আরব ও মিত্ররা

ঢাকায় জনস্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে সিটি কর্পোরেশন কি ব্যর্থ?

কাশ্মীরে লস্করের 'হিন্দু জঙ্গি' সম্পর্কে যা জানা যাচ্ছে

সম্পর্কিত বিষয়