যুক্তরাষ্ট্রে নিজেদের কমপ্লেক্স ফেরত চায় রাশিয়া

ছবির কপিরাইট EPA
Image caption গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ এনে ম্যারিল্যান্ডের এ কমপ্লেক্সটি বন্ধ করে দিয়েছিলো ওবামা প্রশাসন

যুক্তরাষ্ট্রের ভেতরে থাকা কূটনৈতিক স্থাপনায় বিনা শর্তে প্রবেশাধিকারের দাবী জানিয়েছে রাশিয়া।

দু'দেশের মধ্যে উচ্চ পর্যায়ের এক বৈঠকে এ দাবি জানিয়েছে রাশিয়া।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জড়িত থাকার অভিযোগে সেই কম্পাউন্ড দুটো গত বছর ডিসেম্বরে বন্ধ করে দিয়েছিলো ওবামা প্রশাসন।

পাশাপাশি, ৩৫ জন রুশ কূটনীতিককেও বহিষ্কার করা হয়েছিলো।

মার্কিন এ পদক্ষেপকে 'দিনের আলোয় ডাকাতির' মত ঘটনা বলে ব্যাখ্যা করেছিলেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ।

মার্কিন এই আচরণকে 'অগ্রহণযোগ্য' বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন।

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption লং আইল্যাণ্ডের এ কমপ্লেক্সটিও বন্ধ করে দিয়েছিলো যুক্তরাষ্ট্র

মিস্টার লাভরভ বলেন, "এটা দিনের আলোতে লুটপাটের মতন ঘটনা। অন্যদেশের সম্পত্তি দখল করে নেয়াটাকে আর কী বলা যায়! সম্পত্তি ফেরত দেয়ার ক্ষেত্রে তারা এমন আচরণটা করছে যে: আমার যা আছে তা আমার, আর তোমার যা আছে তা আমরা ভাগাভাগি করে নেবো। ভদ্রলোকেরা এমন ব্যবহার করেন না"।

রুশ কম্পাউন্ডগুলো ফেরত পাবার ব্যাপারে, জুন মাসে বৈঠক হবার কথা ছিল।

কিন্তু ইউক্রেনকে কেন্দ্র করে রাশিয়ার ৩৮ জন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ও কিছু প্রতিষ্ঠানের উপরে যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় সেই বৈঠক বাতিল হয়ে যায়।

গত সপ্তাহে রাশিয়াও হুমকি দিয়েছে যে, বন্ধ করে দেয়া দুটো কম্পাউন্ডে রুশ অধিকার ফিরে না পেলে তারা ৩০জন মার্কিন কূটনীতিককে বিতাড়ন করবে এবং রাশিয়ায় থাকা মার্কিন রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি জব্দ করবে।

এই হুমকির পর রুশ-মার্কিন সম্পর্ক আরো জটিল হতে পারে বলে অনুমান করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

সম্পর্কিত বিষয়