চিফ অব স্টাফ বদলালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, জানালেন টুইট করে

জেনারেল জন কেলি এবং রেইন্স প্রাইবাস ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption জেনারেল জন কেলি (বাঁয়ে) এবং রায়ান্স প্রিবাস।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট করে তার চিফ অব স্টাফকে বদলানোর ঘোষণা দিয়েছেন।

ফলে মোট ছ'মাসের মাথায় অপসারিত হলেন ট্রাম্প প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা রায়ান্স প্রিবাস।

নতুন কমিউনিকেশন ডিরেক্টর অ্যান্থনি স্কারামুচির নিয়োগের পর থেকেই চাপে ছিলেন মি. প্রিবাস।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি গণমাধ্যমের কাছে গোপন তথ্য ফাঁস করছেন।

এরকম অভিযোগ নিয়ে একটি টুইটও করেছেন মি. স্কারামুচি, যদিও অনতিবিলম্বে তা মুছে ফেলেন তিনি।

আর এরকম প্রেক্ষাপটেই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এলো এই পরিবর্তনের ঘোষণা।

নতুন চিফ অব স্টাফ হচ্ছেন হোমল্যান্ড সিকিউরিটির ডিরেক্টর জেনারেল জন কেলি।

তার নামটিও টুইটের মাধ্যমে প্রকাশ করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

শুক্রবার বিকেলে ধারাবাহিকভাবে কয়েকটি টুইটের মাধ্যমে এই পরিবর্তনের কথা জানান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

অবশ্য মার্কিন গণমাধ্যমগুলোতে খবর দেয়া হচ্ছে, বৃহস্পতিবার প্রেসিডেন্টের কাছে পদত্যাগপত্র পেশ করেন মি. প্রিবাস।

নতুন চিফ অব স্টাফ জন কেলি মেরিন কর্প থেকে অবসরপ্রাপ্ত একজন চার তারকা জেনারেল। বর্তমানে তিনি হোমল্যান্ড সিকিউরিটির দায়িত্বে আছেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বর্ণনায় তিনি একজন 'গ্রেট আমেরিকান' এবং 'সত্যিকারের তারকা'।

হোয়াইট হাউজের একজন মুখপাত্র জানাচ্ছেন, আগামী সোমবার থেকে নতুন দায়িত্ব গ্রহণ করবেন জেনারেল কেলি।

ওয়াশিংটন থেকে বিবিসির একজন সংবাদদাতা জানাচ্ছেন, রিপাবলিকান পার্টি ও ট্রাম্প প্রশাসনের মধ্যে সর্বশেষ যোগসূত্র ছিলেন রায়ান্স প্রিবাস।

তাকে অপসারণের পর এখন ট্রাম্প প্রশাসনে তার অনুগতরা ছাড়া আর কেউ রইল না।