হানিমুন শেষে নববধূর জায়গা হলো জেলে

ছবির কপিরাইট MURFREESBORO POLICE
Image caption ঘটনার পরপরই নববধূকে জেলে নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ

যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসিতে এক নববধূকে আটক করেছে সেখানকার পুলিশ।

পুলিশের অভিযোগ ওই নববধূ বিয়ের অনুষ্ঠান শেষ হতে না হতেই স্বামীর মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি দেন।

২৫ বছর বয়সী কেট এলিজাবেথ প্রিচার্ড যখন আটক হন তখনো তিনি বিয়ের পোশাক পরিহিত ছিলেন।

অভিযোগ অনুযায়ী এলিজাবেথ একটি নাইন এমএম পিস্তল তার স্বামীর মাথায় ঠেকান এবং ট্রিগার চাপেন।

তবে ভাগ্য সহায় ছিলো যে পিস্তলে তখন কোন গুলি ছিলোনা।

অবশ্য পরে আবার গুলি ভরেন পিস্তলে ও ফাঁকা গুলি ছুঁড়লে উপস্থিত লোকজন ভয়ে পালাতে থাকেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের অনেকের অভিযোগ নবদম্পতি মদ্যপান করছিলো এবং মোটেলের বাইরে নিজেদের মধ্যে ঝগড়া করছিলো।

পুলিশ কর্মকর্তারা তাদের দুজনের বিরুদ্ধেই কর্তৃপক্ষের সাথে অসহযোগিতার অভিযোগ এনেছেন।

একজন কর্মকর্তা বলেন,"তিনি বিয়ের পোশাকের মধ্যে লুকিয়ে রাখা পিস্তল বের করে তার স্বামীর মাথায় ঠেকান"।

পরে পুলিশ নববধূর স্বামীকে বলেন, "তোমাদের হানিমুন শেষ"।

পরে নববধূকে জেলে নেয়া হয় বলেও নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন 'আমার দেয়া ছাগল মারা যায় নি. মানহানিও হয়নি'

ছাগলের খবর শেয়ার করে ৫৭ ধারায় সাংবাদিক গ্রেপ্তার

পত্রিকা-টিভির মালিকরাও এখন ৫৭ ধারা বাতিল চাইছেন

সম্পর্কিত বিষয়