মালয়েশিয়ায় সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে বাংলাদেশিসহ গ্রেফতার চারশোর বেশি মানুষ

মালয়েশিয়ার পুলিশ ছবির কপিরাইট EPA
Image caption সাউথ-ইস্ট এশিয়ান গেমস শুরুর আগে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে মালয়েশিয়ার কর্তৃপক্ষ।

মালয়েশিয়ার কর্তৃপক্ষ সন্ত্রাসবিরোধী এক অভিযানে চারশোর বেশি মানুষকে গ্রেফতার করেছে, যাদের বেশিরভাগই বাংলাদেশ, ভারত এবং পাকিস্তানের নাগরিক।

রাজধানী কুয়ালালামপুরে পরপর বেশ কয়েকটি অভিযানে এদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে পুলিশ জাল পাসপোর্ট এবং মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের ভুয়া কাগজপত্র জব্দ করেছে।

এক সপ্তাহ পরই দেশটিতে সাউথ-ইস্ট এশিয়ান গেমস শুরু হতে যাচ্ছে। আর এই প্রেক্ষাপটে নিরাপত্তা ব্যবস্থাও জোরদার করেছে মালয়েশিয়ার কর্তৃপক্ষ।

বিবিসি বাংলায় আরো পড়ুন:

সোমবারের ওই অভিযানে দেখা গেছে বেশ কয়েকটি বাড়িতে পুলিশ দরজা ভেঙ্গে প্রবেশ করেছে এবং হাতকড়া পরিয়ে অনেককে গাড়িতে তুলেছে। পুলিশ জানায়, তদন্ত ও অনুসন্ধানের জন্য এদের নিকটস্থ থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, যেসব ব্যক্তি নিখোঁজ বা ভ্রমণের ভুয়া কাগজপত্র বহনকারী কোনো ব্যক্তি বা সিরিয়া ও ইরাকে গিয়ে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সাথে জড়িত হতে পারে এমন মানুষদের লক্ষ্য করে এ অভিযান চালানো হয়।

"বিদেশী কোনো সন্দেহভাজন ব্যক্তির সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ততা আছে কিনা, বিশেষ করে সিরিয়ায় সন্ত্রাসমূলক কর্মকাণ্ডের সাথে কেই যুক্ত কিনা -তা আমরা খতিয়ে দেখবো এবং কিছু প্রমাণ হলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থাও নেব" - পুলিশের সন্ত্রাসবিরোধী ইউনিটের কর্মকর্তা আইয়ুব খান মাইদিন পিচায়কে উদ্ধৃত করে এ তথ্য দিয়েছে সংবাদ মাধ্যম ফ্রি মালয়েশিয়া টুডে।

সম্পর্কিত বিষয়