দক্ষিণ আফ্রিকার আদালতে চার নরখাদকের বিচার

আফ্রিকার বহু দেশে এখনও মানুষের মাংষ খাওয়া হয়। ওয়াডুনিয়া মোগালোয়া নামে সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপবালিকের এই ব্যক্তিও মানুষের মাংস খেয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন। ছবির কপিরাইট বিবিসি
Image caption আফ্রিকার বহু দেশে এখনও মানুষের মাংষ খাওয়া হয়। ওয়াডুনিয়া মোগালোয়া নামে সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপবালিকের এই ব্যক্তিও মানুষের মাংস খেয়েছেন বলে স্বীকার করেছেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার এক আদালতে চার নরখাদকের বিচার শুরু হয়েছে।

এদের মধ্যে একজন পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে বলেছিল যে, মানুষের মাংস খেতে খেতে সে ক্লান্ত হয়ে পড়েছে।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের এত পর্যায়ে যে ব্যাগ থেকে মানুষের একটি ঠ্যাং এবং একটি হাত বের করে দেয়।

এরপর তাকে সাথে নিয়ে কোয়াজুলু-নাটাল এলাকার এক বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ আরো কয়েকটি মানুষের অঙ্গ উদ্ধার করে।

গ্রেফতারকৃত চারজনের বিরুদ্ধে হত্যা ও হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

আটক ব্যক্তিদের মধ্যে দু'জন ঝাড়ফুঁক করার ওঝা।

পুলিশের একজন মুখপাত্র বিবিসিকে বলেছেন, ২২ থেকে ৩২ বছর বয়সী এই চার আসামী বড় কোন নরমাংসভোজী দলের সদস্য বলে তারা মনে করছেন।

ঐ বাড়িটিতে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের পাঠানো হয়েছে।

সেখান থেকে উদ্ধার করা অঙ্গগুলো একই মানুষের না বিভিন্ন জনের তা এখনও পরিষ্কার নয়।

ছবির কপিরাইট বিবিসি
Image caption ওয়েস্ট পুপুয়া নিউ গিনির কোম্বাই উপজাতি এখনও নরখাদক বলে অভিযোগ করেছে।

সম্পর্কিত বিষয়