মাঠে ময়দানে
আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের স্বর্ণযুগ কেন হারিয়ে গেল? ফেরানো কি সম্ভব?

ইংল্যান্ডের সাথে চলতি টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে যেভাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ হেরেছে, তাতে একসময়কার পরাক্রমশালী এই ক্রিকেট শক্তির বর্তমানের করুণ দশা নগ্ন হয়ে গেছে।

তিনদিনের মধ্যে শেষ হয়েছে ম্যাচ। পরাজয় হয়েছে এক ইনিংস এবং ২০৯ রানে। একদিনে ১৯টি উইকেট খুইয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ম্যাচের পর সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার জেফ বয়কট মন্তব্য করেন - গত ৫০ বছরে এত খারাপ টেস্ট টিম তিনি দেখেন নি।

যে দল একসময় বছরের পর বছর টেস্ট ক্রিকেটে মুকুটহীন সম্রাট ছিলো, তাদের এই দশা কেন?

ত্রিনিদাদে ক্রিকেট বিশ্লেষক ওরিন গর্ডনকে, যিনি একসময় বিবিসির সাংবাদিক হিসাবেও কাজ করেছেন, বলেন , প্রধান সমস্যাই হচ্ছে ক্রিকেট ব্যবস্থাপনায় সঙ্কট, দুর্বলতা । ক্রিকেটার এবং বোর্ডের মধ্যে ক্রমাগত ঝগড়া চলছে।

দ্বিতীয়ত, কয়েকজন সেরা ক্রিকেটার টেস্ট দলে নেই। "ক্রিস গেইল বা সুনীল নারিনকে আপনি আইপিএল এবং অন্য সব টি২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে দেখবেন, কিন্তু তাদের আপনি টেস্ট দলে দেখবেন না। বোর্ড এমন একটি পরিস্থিতি তৈরি করেছে যেখানে বেশ কজন ক্রিকেটার আর দলে খেলছেন না। বদলে তারা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে গিয়ে টি২০ ক্রিকেট খেলে পয়সা উপার্জন করছেন।"

তৃতীয়ত, দলে মানসম্পন্ন টেস্ট ক্রিকেটার ক্রমাগত কমছে। ৭০ এবং আশির দশকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ভিভ রিচার্ড, ক্লাইভ লয়েড, কালিচরন, অ্যান্ডি রবার্ট, মাইকেল হোল্ডিং, জোয়েল গার্নার, কলিন ক্রফটের মত ক্রিকেটাররা খেলতেন। "এত প্রতিযোগিতা ছিল যে ম্যালকম মার্শালের মত বোলারদের নিয়মিত দলে জায়গা হতোনা। দলের সেই মান এখন অতীত।"

কিন্তু সেই মানের ক্রিকেটার আর সেখানে তৈরি হচ্ছেনা? ওরিন গর্ডন মনে করছেন অন্যতম কারণ নতুন প্রজন্মের মধ্যে ক্রিকেটের সেই আবেদন আগের মত নেই। তাছাড়া পিচের মান নষ্ট হয়ে গেছে। "প্রধান কথা, ৭০ এবং আশির দশক ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের স্বর্ণ যুগ। সেই যুগ ধরে রাখা যায়নি।"

ছবির কপিরাইট Michael Steele
Image caption চলতি সিরিজের প্রথম টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের লজ্জাজনক পরাজয়

বর্তমানের এই সঙ্কট থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের উত্তরণ কিভাবে সম্ভব?

ওরিন গর্ডন বলছেন, কিছু পদক্ষেপ এখন জরুরী ।

"দ্রুত যেটা করতে হবে তা হলো শ্রেষ্ঠ ক্রিকেটোরদের টেস্ট দলে ঢোকাতে হবে। বর্তমান দলের তরুণ ক্রিকেটারদের ব্যাপারে আমার কোনো আপত্তি নেই, কিন্তু বাস্তব সত্য হচ্ছে দলে টেস্ট মানের ক্রিকেটারের সঙ্কট চলছে। বর্তমান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার টেস্ট ক্রিকেটার হিসাবে ভালো নন। তিনি দলে আছেন, কারণ অনেকগুলো ভালো খেলোয়াড় দলে নেই। যে কোনোভাবে বোঝাপড়ার মাধ্যমে ঐ ক্রিকেটারদের দলে আনতে হবে।"

তার মতে, আরো দুটো বিষয় জরুরী। "কোচিং এবং অধিনায়কত্ব বিরাট পার্থক্য তৈরি করে। স্টিভেন ফ্লেমিং যখন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক হন, তখন দলে ভালো তেমন কোনো ক্রিকেটার ছিলেন না। কিন্তু ফ্লেমিং খেলাটা ভালো বুঝতেন। তিনি ঐ ক্রিকেটারদের কাছ থেকেই তাদের শ্রেষ্ঠ পারফরমেন্স বের করে আনতে পারতেন।"

ওরিন গর্ডনের মতে, ভালো একজন কোচ এবং অধিনায়ক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটে পার্থক্য তৈরি করতে পারেন।

"অনেক সময় আপনি কত ভালো, তার চেয়ে আপনি কতটা প্রস্তুতি নিয়েছেন - সেটা অনেক বেশি জরুরী। একটি বিশেষ পরিবেশে, বিশেষ প্রতিপক্ষকে কিভাবে সামলাবেন - সেটা একজন ভালো কোচ বাতলে দিতে পারেন।"

সম্পর্কিত বিষয়