পেন্স-আব্বাস বৈঠক বাতিল না করতে ফিলিস্তিনকে যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারি

ছবির কপিরাইট AFP/Getty Images
Image caption বেথেলহেমে গ্রাফিতি- 'পেন্স তোমাকে স্বাগত জানানো হবেনা'

জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের স্বীকৃতি দেয়ার পর, গাজা এবং অধিকৃত পশ্চিম তীরে সংঘর্ষে অনেক আহত হয়েছে।

মার্কিন এই ঘোষণার প্রতিবাদে, এমনকি, যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সাথে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের পূর্ব নির্ধারিত সাক্ষাতও বাতিল করে দেবার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

আর এ প্রেক্ষাপটে বৈঠক বাতিল না করতে ফিলিস্তিনকে সতর্ক করে দিয়েছে হোয়াইট হাউজ।

ওদিকে জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প স্বীকৃতি দেবার পর চারিদিকে নিন্দার ঝড় উঠেছে। আর এরই মধ্যে গাজা ও পশ্চিম তীরে ছড়িয়ে পড়েছে সংঘর্ষ।

অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে সংঘর্ষে অন্তত ৩১ জন আহত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। আহতদের একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ফিলিস্তিনে লোকজন প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে এলে পশ্চিম তীরে অতিরিক্ত সৈন্য মোতায়েন করেছে ইসরায়েল।

বিক্ষোভকারীরা টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তায় আগুন ধরিয়ে দেয় এবং পুলিশের দিক ইট-পাটকেল ছুঁড়লে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুঁড়ে।

এদিকে, এসব ঘটনার মধ্যেই ফিলিস্তিনকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে হোয়াইট হাউস।

এই মাসের শেষের দিকে সেই অঞ্চলে এক সফরে যাবেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। কিন্তু সেই সময়ে তাকে 'স্বাগত জানানো হবে না' বলে ঘোষণা দিয়েছেন প্যালেস্টাইনের একজন কর্মকর্তা জিব্রি রাজৌব।

কিন্তু নির্ধারিত বৈঠক ফিলিস্তিন যাতে বাতিল না করে সেই মর্মে আগেই হুঁশিয়ারি দিয়ে হোয়াইট হাউস বলেছে, এই ধরণের সিদ্ধান্ত বরং আরো উল্টো ফল বয়ে আনবে।

বিতর্কিত নগরী জেরুসালেমকে বুধবারে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে মার্কিন দূতাবাস সেখানে স্থানান্তরের ঘোষণা দিয়েছেন ডোনাল।ড ট্রাম্প।

তার এই ঘোষণার নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানিসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ।