সাজাপ্রাপ্ত মাদক পাচারকারীর মিউজিক ট্র্যাক নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় আলোচনা

ছবির কপিরাইট INSTAGRAM/SCHAPELLE CORBY
Image caption 'পাম ট্রি' নামে মিউজিক ট্র্যাকে এভাবেই দেখা গেছে তাকে

মাদক পাচারের দায়ে ইন্দোনেশিয়াতে দশ বছর জেল খেটে এবং তিন বছর প্যারোলে কাটিয়ে শ্যাপেল করবি অস্ট্রেলিয়ায় ফিরেছেন কয়েক মাস আগে।

কদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক মিউজিক ট্র্যাকে গান গাইতে দেখা গেছে করবিকে।

'পাম ট্রি' নামে ট্র্যাকটিতে করবিকে গাইতে দেখা যায়, "আমি কুইন্সল্যান্ডে আছি, এখানে রৌদ্রকরোজ্জল। আমার পেছনে অনেক পাম গাছ"।

ইনস্টাগ্রামে দেয়া এক পোষ্টে করবি লিখেছেন, মিউজিক ট্র্যাকটি বানাতে "খুবই মজা হয়েছে"।

মিজ করবির এই মিউজিক ট্র্যাক নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিভক্ত হয়ে পড়েছে।

ছবির কপিরাইট গেটি
Image caption ইন্দোনেশিয়াতে মাদকসহ ধরা পড়ার পর

কেউ তারিফ করছেন এই বলে যে করবির পরিবর্তন উৎসাহব্যঞ্জক।

কেউ কেউ তাকে অস্ট্রেলিয়ার সত্যিকারের আইকন বলে অভিহিত করছেন।

আবার কেউ ব্যপারটিকে পুরো ধাপ্পাবাজি বলে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন।

তবে পরিষ্কারভাবে বিষয়টি ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

২০০৪ সালে প্রায় সাড়ে চার কেজি মারিজুয়ানা বা গাঁজা নিয়ে ইন্দোনেশিয়াতে ধরা পড়েছিলেন শ্যাপেল করবি।

আরো পড়ুন:ডোনাল্ড ট্রাম্পের টুইটে পাক-মার্কিন বাকযুদ্ধ শুরু

ইরানে বিক্ষোভ: সেখানকার একজন বাংলাদেশীর চোখে

এ বছর বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ইস্যু হবে নির্বাচন?

নিজেকে নির্দোষ দাবী করেছিলেন করবি, কিন্তু দ্বীপ রাষ্ট্রটির মাদক আইন খুবই কঠোর।

এক দশক জেল খেটেছেন আর তিন বছর ছিলেন প্যারোলে। ২০১৭ সালের মে মাসে মুক্তি পেয়েছেন তিনি।

গাজা নিয়ে বালিতে ধরা পড়ার ঘটনা ঐ সময়ে বেশ আলোড়ন তুলেছিল।

পুরোটা সময় অস্ট্রেলিয়ার গণমাধ্যম তার খবরাখবর প্রচার ও প্রকাশ করেছে।

শুরু থেকেই মিজ করবিকে নিয়ে অস্ট্রেলিয়া দুই ভাগে বিভক্ত ছিল। নিজের দেশে বরাবর সহানুভূতি পেয়েছেন তিনি।

অনেকে বিশ্বাস করতেন যে করবির সঙ্গে অকারণে রূঢ় ব্যবহার করা হয়েছে।

করবি জেলখানায় মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন, এমন খবরেও তার প্রতি সহানুভূতিশীল ছিলেন অনেকে পুরোটা সময়।