টেমস নদীতে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বোমা, বন্ধ করে দেয়া হয়েছে লন্ডনের সিটি এয়ারপোর্ট

লন্ডনের সিটি এয়ারপোর্ট
Image caption সিটি এয়ারপোর্ট থেকে সব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

লন্ডনে টেমস নদীতে পাঁচশো কেজি ওজনের একটি বোমা খুঁজে পাওয়ার পর নিকটবর্তী সিটি এয়ারপোর্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

সিটি এয়ারপোর্টের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, সারাদিনই এটি বন্ধ থাকবে। সেখান থেকে সব ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এর ফলে প্রায় ১৬ হাজার যাত্রী সমস্যায় পড়বেন।

রোববার সিটি এয়ারপোর্টের কাছে টেমস নদীর ধারে একটি পূর্ব নির্ধারিত কাজ চলার সময় বোমাটি খুঁজে পাওয়া যায়। এটি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ফেলা বোমা বলে মনে করা হচ্ছে।

ঐ জায়গার আশে-পাশের এলাকা থেকে সব পরিবারকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। বোমা নিস্ক্রিয়করণ বিশেষজ্ঞ দলের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন।

রোববার রাত দশটা থেকেই সিটি এয়ারপোর্ট বন্ধ করে দেয়া হয়। লন্ডনের মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে, তারা রয়্যাল নেভির সঙ্গে মিলে এই বোমাটি সরাতে কাজ করছে।

Image caption বিমানবন্দরের একটি সংস্কার কাজ চলার সময় বোমাটি খুঁজে পাওয়া যায়

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে বোমাটি খুঁজে পাওয়া গেছে সেটি জার্মান। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এটি ফেলা হয়েছিল।

সিটি এয়ারপোর্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রবার্ট সিনক্লেয়ার যাত্রীদের অসুবিধার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন।

তিনি জানান, বোমাটি উদ্ধার এবং নিস্ক্রিয় করতে তারা পুলিশ এবং নৌবাহিনীর সঙ্গে সহযোগিতা করছেন।

Image caption টেমস নদী থেকে বোমাটি তোলার চেষ্টা চলছে।

লন্ডনের সিটি এয়ারপোর্ট থেকে মূলত ইউরোপের বিভিন্ন গন্তব্যের ফ্লাইট যায়। ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ, ফ্লাইবি, সিটিজেট, কেএলএম এবং লুফথানসা এখান থেকে ফ্লাইট পরিচালনা করে।

ঘটনাস্থলের আশে-পাশের অনেক রাস্তাও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

ছবির কপিরাইট PA
Image caption লন্ডনের সিটি এয়ারপোর্ট একেবারে টেমস নদীর ধারেই।

সম্পর্কিত বিষয়