BBC navigation

নতুন রাজনৈতিক দল গড়লেন নাজমুল হুদা

সর্বশেষ আপডেট শুক্রবার, 10 অগাষ্ট, 2012 16:13 GMT 22:13 বাংলাদেশ সময়
bangla_najmul_huda

নতুন দল গড়ার কথা ঘোষণা করছেন নাজমুল হুদা (ছবি :ফোকাসবাংলা)

বাংলাদেশের প্রধান বিরোধী দল বিএনপির সাবেক নেতা নাজমুল হুদার নেতৃত্বে আজ একটি নতুন রাজনৈতিক দলের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে।

মিঃ হুদার এই দলের নাম বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট এবং তিনি বলেছেন যে এটি একটি নির্বাচনমুখী দল, যার আদর্শগত ভিত্তি হবে বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ।

তাঁর বিরুদ্ধে বিএনপি ভাঙ্গার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ আনা হলেও তিনি তা নাকচ করে দিয়ে বলেন, বিএনপি থেকে বেরিয়ে গেছেন এমন নেতাদের তিনি একত্রিত করার চেষ্টা করবেন, তবে দলটি তিনি গড়ে তুলতে চান একটি মানবাধিকার সংগঠনের কর্মীদের নিয়ে।

বিএনপির রাজনীতিতে সব সময়েই প্রবলভাবে আলোচিত ও সমালোচিত ছিলেন নাজমুল হুদা।

যাদের হাতে বিএনপি দলটি গড়ে উঠেছিল তিনি ছিলেন তাদের একজন। আবার এই দল থেকে তিনি বহিষ্কৃতও হয়েছেন।

পরে আবারো দলে ফিরলেও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংলাপে আমন্ত্রণ জানাতে তাঁর দাবি পূরণ করেননি, এই অভিযোগে গত জুন মাসে তিনি পদত্যাগ করেন।

"বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের প্রবর্তিত বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের আদর্শেই আমাদের নতুন দলটি চলবে"

নাজমুল হুদা, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ফ্রন্টের নেতা

এবারে তিনি নতুন একটি দলই গঠন করলেন। মি হুদা বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের প্রবর্তিত বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের আদর্শেই নতুন দলটি চলবে।

তিনি বলেন, জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট গঠন করেছিলেন জিয়াউর রহমান তাঁর রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে এবং জোটের দলগুলো নিয়েই পরে বিএনপি গঠন করা হয়। এরপর জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট অনেকটা সুপ্তাবস্থায় ছিল।

“আমরা চেষ্টা করছি এটিকে রাজনৈতিক দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করাতে। আর এর মাধ্যমে জনগণের রায় দেয়ার বিষয়টিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেয়ার লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি,” বলেন সাবেক এই যোগাযোগমন্ত্রী।

নাজমুল হুদা বলেন, জাতীয়তাবাদী ফ্রন্ট একটি বিকেন্দ্রীকৃত রাজনৈতিক দল হবে। তবে এটি গড়ে তোলার ক্ষেত্রে তাঁর নেতৃত্বাধীন একটি মানবাধিকার সংগঠনকে কাজে লাগানো হবে বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, সংসদের ৩০০টি আসনের প্রত্যেকটিতে একটি করে কমিটি থাকবে এবং সেই কমিটি একজন করে প্রার্থী ঠিক করবে।

দলটি গড়ে তুলতে তাঁর একটি বিশেষ সুবিধা আছে, এ কথা জানিয়ে তিনি বলেন যে তাঁর নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার কেউ এই দলে যোগ দিতে চাইলে তাকে স্বাগত জানানো হবে।

তিনি বলেন, ‘সারা বাংলাদেশে এই সংগঠনের ৩১৫টি কমিটি রয়েছে। আমরা মনে করি, তাদের অনেকেই রাজনৈতিক দলে যোগ দিতে আগ্রহী হবেন।’

তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহালের দাবীতে আন্দোলন চাঙ্গা হওয়ার পর গুজব ছড়িয়ে পড়েছিল যে বিএনপিতে ভাঙ্গন ধরতে পারে। নাজমুল হুদা বিএনপি ছাড়ার পর এই অভিযোগ কেবল জোরদারই হয়েছে।

"যখন সরকারি মহল থেকেই বলা হচ্ছে যে বিএনপিতে ভাঙ্গন হতে পারে, তখন সাবেক কোন নেতা দল গঠন করলে স্বাভাবিকভাবে সন্দেহের তীর তার দিকেই যায়"

আসম হান্নান শাহ, বিএনপি-র জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য

বিএনপির নেতারা বলছেন দলের স্বার্থবিরোধী বক্তব্য দেয়ার কারণে মিঃ হুদা অতীতেও দলীয় শাস্তি ভোগ করেছেন। তাই তাদের এখন সন্দেহ, নতুন দল কি মিঃ হুদা নিজে করছেন, নাকি পেছন থেকে কেউ তাঁকে দিয়ে করাচ্ছেন!

এ ব্যাপারে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আসম হান্নান শাহ বলেন, যখন সরকারি মহল থেকেই বলা হচ্ছে যে বিএনপিতে ভাঙ্গন হতে পারে, তখন সাবেক কোন নেতা দল গঠন করলে স্বাভাবিকভাবে সন্দেহের তীর তাদের দিকেই যায়।

মি শাহ সেই সঙ্গেই অবশ্য বলছেন, “তবে আমি পরিস্কার করেই বলতে চাই যে বিএনপিকে ভাঙ্গার কোন ষড়যন্ত্র অতীতে সফল হয়নি, ভবিষ্যতেও হবে না।“

তবে বিএনপি নেতাদের এই অভিযোগ নাকচ করে দেন নাজমুল হুদা। তিনি বলেন যে তিনি বিএনপি ত্যাগ করেই রাজনীতি করছেন।

তাঁর কথায়, ‘আর সেই রাজনীতিতে যদি কোন দল ভাঙ্গে, তাহলে দোষ কার? যে দল নিজেদের নেতৃবৃন্দকে ধরে রাখতে পারলো না, তাদের দোষ না কি আমার দোষ?’

নাজমুল হুদার দলের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্য কোন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে দেখা যায়নি। তিনি জানিয়েছেন, সংসদ নির্বাচনে তাঁর দল ৩০০ আসনেই প্রার্থী দেবে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻