BBC navigation

হিনা রাব্বানীর সফরের আগে সাংবাদিক গ্রেফতার

সর্বশেষ আপডেট শুক্রবার, 9 নভেম্বর, 2012 11:23 GMT 17:23 বাংলাদেশ সময়

পাকিস্তানী পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিনা রাব্বানী খারের সঙ্গে দেশটির প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারির ছেলের প্রণয়ের সম্পর্কের গুজব প্রকাশ করেছিল যে বাংলাদেশি সংবাদপত্র, তার সম্পাদককে ঢাকার পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

ঢাকার ইংরেজী সাপ্তাহিক ‘ব্লিটজ’ এর সম্পাদক সালাউদ্দীন শোয়েব চৌধুরিকে পুলিশ গ্রেফতার করে হিনা রাব্বানী খারের ঢাকা সফর শুরু হওয়ার প্রাক্কালে। তবে পুলিশ বলছে, তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে একটি প্রতারণার মামলায়, পাকিস্তানী পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সফরের সঙ্গে এর কোন সম্পর্ক নেই।

তবে সাপ্তাহিক ‘ব্লিটজ’ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক এবং সালাউদ্দীন শোয়েব চৌধুরির ভাই সোহায়েল চৌধুরী বলেছেন, তারা আশংকা করছেন পত্রিকায় প্রকাশিত কোন সংবাদের সঙ্গে হয়তো তাঁর ভাইকে গ্রেফতারের যোগসূত্র থাকতে পারে।

তিনি জানান, যে মামলায় তাঁর ভাইকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে সেটি দায়ের করা হয় গত ২৯ শে অক্টোবর।

সালাউদ্দীন শোয়েব চৌধুরির বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে এই মামলাটি দায়ের করেন সাজ্জাদ হোসেন নামের এক ব্যবসায়ী।

হিনা রাব্বানী খার পাকিস্তানের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টো এবং প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারির বড় ছেলে বিলাওয়াল ভুট্টোর সঙ্গে প্রণয়ে জড়িয়ে পড়েছেন- এই মর্মে খবর প্রকাশ করেছিল সাপ্তাহিক ‘ব্লিটজ’। এই পত্রিকাকে উদ্ধৃত করে পরে এই খবরটি বিশ্বের বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়। হিনা রাব্বানী খারের পরিবারের পক্ষ থেকে অবশ্য পরে এই খবরটিকে একেবারেই বানোয়াট বলে উড়িয়ে দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানী পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিনা রাব্বানী খার আঞ্চলিক জোট ডি-এইটের সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতে শুক্রবার কয়েক ঘন্টার এক সফরে ঢাকা যান।

ইংরেজী সাপ্তাহিক ‘ব্লিটজ’ এর সম্পাদক সালাউদ্দীন শোয়েব চৌধুরি ঢাকার গণমাধ্যম জগতে এর আগেও নানা কারণে বিতর্কিত হয়েছেন। পুলিশ এর আগেও তাকে বেশ কয়েকবার বিভিন্ন অভিযোগে গ্রেফতার করেছে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻