BBC navigation

পুলিশের ওপর হামলায় জঙ্গি জড়িত: র‍্যাব

সর্বশেষ আপডেট রবিবার, 18 নভেম্বর, 2012 13:56 GMT 19:56 বাংলাদেশ সময়

চট্টগ্রামে পুলিশের গাড়িতে হামলা।

বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে গত ক'দিন ধরে পুলিশের উপর যে আকস্মিক হামলা চলছে তাতে একটি ধর্মভিত্তিক দলের সঙ্গে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনগুলোর সদস্যরাও জড়িত রয়েছে বলে জানাচ্ছে দেশটির বিশেষ বাহিনী র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন বা র‍্যাব।

রাজধানী ঢাকা ও বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামে রোববারও পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে ক্ষয়ক্ষতির চেষ্টা করেছে ধর্মভিত্তিক দল জামায়াতে ইসলামী, এমন অভিযোগ করছে পুলিশ।

ঢাকায় পুলিশ বলছে, বিকেলে হঠাৎ করে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে একটি মিছিল বের করে একদল মানুষ।

যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে এম আবুল কাশেম বলছেন, ক'মিনিট ধরে তারা মিছিল করে এবং হঠাৎ করেই তারা একটি অপেক্ষমান পুলিশ-ভ্যানে আক্রমণ চালায়, ইট-পাটকেল ছোঁড়ে এবং ভ্যানটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে।

হামলায় আহত পুলিশ সদস্য।

হামলায় পুলিশের একজন সদস্য আহত হয়।

একই রকম হামলার ঘটনা ঘটেছে চট্টগ্রামে।

পুলিশের গোয়েন্দা শাখার উপ-সহকারি কমিশনার তারেক আহমেদ বলছেন, সকালে পুলিশের একটি ভ্যান জ্বালানি তেল নেয়ার জন্য একটি পেট্রোল পাম্পে অপেক্ষা করছিলো, এ সময় একটি মিছিল থেকে ভ্যানটির ওপর হামলা চালানো হয়। গাড়িটি ভাঙচুর করা হয়।

তিনজন পুলিশ এ হামলায় আহত হয়।

হামলার পেছনে কারা?

মূলত নভেম্বর মাসের গোড়ার দিক থেকেই চলছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, বিশেষ করে পুলিশের ওপর এ ধরণের আকস্মিক হামলার ঘটনা।

"নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠীর সদস্যরা হয়তো প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে এসব হামলার সাথে কাজ করছে।"

কমান্ডার এম সোয়াহেল, র‍্যাবের মুখপাত্র

প্রায় প্রতিদিনই বাংলাদেশের কোথাও না কোথাও থেকে এমন হামলার খবর আসছে। এমনকি ঢাকায় আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদের গাড়ি বহরেও হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এই সব হামলার পেছনেই ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দল জামায়াত ইসলামী ও এর সহযোগী সংগঠন ইসলামী ছাত্রশিবিরের সরাসরি হস্তক্ষেপ আছে বলে ব্যাপক ভাবে ধারণা প্রচলিত রয়েছে।

কিন্তু র‍্যাব বলছে, শুধু ধর্মভিত্তিক দলই নয়, তাদের সাথে হামলায় যোগ দিচ্ছেন বিভিন্ন সময়ে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর সদস্যরা।

ঢাকায় নাশকতার আশংকায় পুলিশের তল্লাশী। ফোকাস বাংলা।

র‍্যাবের মুখপাত্র কমান্ডার এম সোহায়েল বলছেন, ''নিষিদ্ধ সংগঠনে যারা আছেন তাদের মধ্যেই এ ধরণের উগ্রতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সেই প্রেক্ষাপটে এবং ইতিপূর্বে যেসব জঙ্গি নেতারা গ্রেপ্তার হয়েছেন তাদের বক্তব্য যদি আমরা ধরে নেই, তাহলে কিন্তু আমরা সাদৃশ্য পাচ্ছি অনেক কিছুই। সেই প্রেক্ষাপটে আমরা বলছি নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠীর সদস্যরা হয়তো প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে এসব হামলার সাথে কাজ করছে'।

মি: সোহায়েল আরো বলছেন, ''ধর্মভিত্তিক যে রাজনৈতিক দলগুলো, তাদের সাথে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনগুলোর অনেক দিক থেকেই আদর্শগত মিল রয়েছে। সুতরাং দেখতে হবে মিছিল কিংবা হামলাগুলো কাদের ব্যানারে হচ্ছে। যাদের ব্যানারে এটা হচ্ছে হামলার দায়দায়িত্ব তাদের ওপরেই পরে।''

একই ধরনের খবর

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻