BBC navigation

অবরোধে বাধা দিলে কঠোর কর্মসূচি: বিএনপি

সর্বশেষ আপডেট শুক্রবার, 7 ডিসেম্বর, 2012 17:10 GMT 23:10 বাংলাদেশ সময়
bnp leader moudud ahmed

বাধা পেলে কঠোর কর্মসূচির হুমকি দিচ্ছে বিএনপি

বাংলাদেশে বিরোধী দলীয় জোট তাদের রাজপথ অবরোধ কর্মসূচিতে বাধা দেওয়ার ব্যাপারে সরকারকে হুশিয়ার করে দিয়েছে। বিএনপির নেতারা বলছেন, রোববারের এই কর্মসূচিতে বাধা দেওয়া হলে সেখান থেকেই কঠোর আন্দোলন ঘোষণা করা হবে।

আওয়ামী লীগের নেতারা পাল্টা সতর্ক করে দিয়েছেন যে কোন ধরনের সহিংসতা ঘটানো হলে তাদেরকে শক্ত হাতে দমন করবে নিরাপত্তা বাহিনী।

হরতাল ও সমাবেশের পর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে এখন রাজপথ অবরোধের কথা ঘোষণা করেছে বিরোধীরা।

বিএনপির নেতৃত্বে বিরোধী ১৮ দলীয় জোট রাজপথ অবরোধের মাধ্যমে সারা দেশ অচল করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছে। বিএনপি বলছে, রাজধানীর সাথে দেশের অন্যান্য এলাকার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার জন্যে তারা প্রস্তুতি নিচ্ছেন। দেশটির অন্যান্য শহরের প্রবেশ পথও সেদিন বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে বিএনপি।

"এটি একটি শক্ত কর্মসূচি। এই কর্মসূচির মাধ্যমে বাংলাদেশের সমস্ত রাজপথে শান্তিপূর্ণভাবে অবরোধ সৃষ্টি করে আমাদের প্রতিবাদ জানাবো"

মওদুদ আহমেদ, বিএনপি নেতা

“ এটি একটি শক্ত কর্মসূচি। এই কর্মসূচির মাধ্যমে বাংলাদেশের সমস্ত রাজপথে শান্তিপূর্ণভাবে অবরোধ সৃষ্টি করে আমাদের প্রতিবাদ জানাবো এবং রাজধানীসহ চট্টগ্রাম, রাজশাহী সমস্ত বড় শহরগুলোতে রাজপথের অবরোধের এ কর্মসূচি পালন করা হবে” বলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা মওদুদ আহমেদ।

আগামী সাধারণ নির্বাচনের সময় ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে সরকারি দ্ল আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে ১৪ দলীয় জোটও ততপর হয়ে উঠছে। জোট চাঙ্গা করার লক্ষ্যে গঠিত হয়েছে বিশেষ কমিটি। আওয়ামী লীগ বলছে, বিরোধী দলের রাজনৈতিক কর্মসূচি নিয়ে তাদের চিন্তার কিছু নেই। তবে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ আশঙ্কা করছেন, জামায়াতে ইসলামীর কারণে বিরোধীদের এই কর্মসূচি সহিংস হয়ে উঠতে পারে।

"খুব স্বাভাবিকভাবেই বিএনপি বা জামায়াত কোন কর্মসূচি দিলে সাধারণ মানুষের মধ্যে একটা আতঙ্ক থাকে"

মাহবুবুল আলম হানিফ, আওয়ামী লীগ নেতা

“দেখা গেছে, বিএনপি এযাবত যেসব কর্মসূচি দিয়েছে, সেগুলো শান্তিপূর্ণভাবে পালনের কথা বললেও তারা শান্তিপূর্ণভাবে পালন করে নাই। খুব স্বাভাবিকভাবেই বিএনপি বা জামায়াত কোন কর্মসূচি দিলে সাধারণ মানুষের মধ্যে একটা আতঙ্ক থাকে। যদি তারা কোন নাশকতামূলক কর্মকান্ড করে, সেক্ষেত্রে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের সর্বোচ্চ করণীয়টাই তারা করবে” বলেন মি. হানিফ।

বিএনপির নেতারা বলছেন, জামায়াতে ইসলামীকে সাথে নিয়েই শান্তিপূর্ণভাবে অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হবে। তবে বাধা দেওয়া হলে সেখান থেকেই তারা কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবেন।

তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনর্বহালের দাবিতে বিএনপি এর আগেও হরতালসহ নানা ধরনের কর্মসূচি পালন করেছে। কিন্তু সরকার তার অবস্থানে অনড় থেকে বলছে, বর্তমান সরকারের অধীনেই অনুষ্ঠিত হবে

কিন্তু সরকারি দলের নেতারা বলছেন, আন্দোলনের মাধ্যমে বিরোধীদের এই দাবী আদায় সম্ভব হবে না। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ বলছেন, আদালতের রায়ে তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে অবৈধ ঘোষণা করায় সংবিধান থেকে এই পদ্ধতিকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তিনি বলছেন, অসাংবিধানিক কোন দাবি মেনে নেবে না বর্তমান সরকার।

একই ধরনের খবর

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻