BBC navigation

স্কাইপ কেলেংকারি সাংবাদিকের দেশত্যাগ

সর্বশেষ আপডেট বৃহষ্পতিবার, 24 জানুয়ারি, 2013 17:43 GMT 23:43 বাংলাদেশ সময়
অলিউল্লাহ্ নোমান

অলিউল্লাহ্ নোমান

বাংলাদেশের একজন সাংবাদিক দাবি করছেন, ১৯৭১ সালের যুদ্ধাপরাধের বিচারের জন্য গঠিত আদালতের একজন বিচারকের স্কাইপফোনে কথাবার্তার বিবরণ নিয়ে রিপোর্ট করার পর নিপীড়নের ভয়ে তিনি ব্রিটেনে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছেন।

স্কাইপ কেলেংকারির সাংবাদিকের দেশত্যাগ

বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের বিচারপতি এবং একজন আইন বিশেষজ্ঞের মধ্যে স্কাইপ আলাপের বিবরণ প্রকাশ করার পর নিপীড়নের ভয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন অলিউল্লাহ নোমান নামে আমার দেশ পত্রিকার একজন সাংবাদিক। তিনি এখন ব্রিটেনে আশ্রিত।

শুনুনmp3

আপনার ফ্ল্যাশ প্লেয়ারের ভার্সনটি সঠিক নয়

বিকল্প মিডিয়া প্লেয়ারে বাজান

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের সাবেক বিচারক বিচারপতি নিজামুল হক নাসিম এবং ব্রাসেলসে একজন আন্তর্জাতিক আইন বিশেষজ্ঞ আহমেদ জিয়াউদ্দিনের মধ্যে কথাবার্তার বিবরণ ঢাকার দৈনিক আমার দেশ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়।

দৈনিক আমার দেশ পত্রিকায় ওই রিপোর্টটি লিখেছিলেন অলিউল্লাহ্‌ নোমান।

এর পর বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হলে ওই বিচারপতি ট্রাইবুনাল থেকে পদত্যাগ করেন।

মি. নোমান এক সাকাষাৎকারে বিবিসি বাংলার পুলক গুপ্তকে জানিয়েছেন, স্কাইপফোনে ওই কথাবার্তার বিবরণ প্রকাশ করার পর বিভিন্ন সরকারি সংস্থা তাকে ধরে নিয়ে গিয়ে নির্যাতন চালাতে পারে - শুভানুধ্যায়ীদের এমন আশংকার পর তাদের পরামের্শেই তিনি দেশ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন।

তবে এই অভিযোগের ব্যাপারে বাংলাদেশের সরকারের কোন বক্তব্য তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

অলিউল্লাহ নোমান বলেন ঐ রিপোর্ট প্রকাশের পর থেকে তিনি আর পত্রিকা অফিস থেকে আর বের হননি এবং পরে কোনমতে বিমানের টিকেট করে তিনি সোজা লন্ডন চলে আসেন।

তিনি গত মাসে ব্রিটেনে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করেন।

এ মাসেই হোম অফিস তাকে ব্রিটেনে অবস্থানের সাময়িক অনুমতি দিয়েছে বলে তিনি বিবিসিকে জানান।

একই ধরনের খবর

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻