BBC navigation

বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জে লঞ্চডুবি : নিখোঁজ অনেক যাত্রী

সর্বশেষ আপডেট শুক্রবার, 8 ফেব্রুয়ারি, 2013 15:39 GMT 21:39 বাংলাদেশ সময়
boat

বাংলাদেশে নৌ দুর্ঘটনার জন্য প্রায়ই ধারণক্ষমতার বেশি যাত্রী বহনকে দায়ী করা হয়

বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জে গজারিয়া উপজেলায় মেঘনা নদীতে এমভি সারস নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবির ঘটনা ঘটেছে।

মুন্সিগঞ্জের জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদল বিবিসিকে জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার সময় লঞ্চটিতে ৬০-৭০ জনের মতো যাত্রী ছিল।

এ ঘটনায় এক তরুণী ও একটি শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

গজারিয়ার পুলিশ ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা বলছেন, এমভি সারস নামে এই লঞ্চটি ঢাকা থেকে ছেড়ে সকাল ৮:৩০-এর দিকে ইসমানির চর গ্রামের পাশে মেঘনা নদী দিয়ে চাঁদপুরের দিকে যাচ্ছিল।

এসময় বালি বহনকারী একটি কাগোর্র সাথে ধাক্কা লাগলে লঞ্চটি ডুবে যায় বলে জানান মুন্সিগঞ্জের জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদল।

খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন ইঞ্জিন চালিত নৌকায় ঘটনাস্থলে গিয়ে বেশ কয়েকজনকে উদ্ধার করে। পরে দুর্ঘটনা কবলিত লঞ্চটি শনাক্ত করে ডুবুরিরা।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা বা বিআইডব্লিউটিএ, দমকল বাহিনী এবং কোস্টগার্ডের ডুবুরিরা উদ্ধার কাজে অংশ নেন।

মি: হাসান আরো জানান, ঘটনার পর ১৮ থেকে ২০ জন যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হন এবং পরে উদ্ধারকারী জাহাজ রুস্তম দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে।

প্রশাসন সূত্রে লঞ্চটিতে ৬০-৭০ জনের মতো যাত্রী থাকার কথা বলা হলেও সাঁতরে তীরে ওঠা কিছু যাত্রী বলেছেন লঞ্চটিতে শতাধিক যাত্রী ছিল।

তবে সর্বশেষ সন্ধ্যা সাতটায় জেলা প্রশাসক মি হাসান জানান লঞ্চটি উদ্ধারের প্রচেষ্টা তখনও চলছিল।

এ পর্যন্ত আটটি পরিবার তাদের স্বজন নিখোঁজ আছে বলে প্রশাসনকে জানিয়েছে।

এই ঘটনায় একটি তদন্ত দল গঠন করা হয়েছে এবং তদন্ত দলের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে এর কারন সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে মুন্সিগঞ্জের জেলাপ্রশাসক জানান।

বাংলাদেশের নদীতে প্রায়ই ফেরি দুর্ঘটনা ঘটে এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এসব দুর্ঘটনার জন্য লঞ্চে ধারণক্ষমতার বেশি যাত্রী বহন এবং নৌকার নক্সায় ত্রুটিকে দায়ী করা হয়ে থাকে।

একই ধরনের খবর

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻