BBC navigation

ব্রহ্মপুত্রের ওপর চীনের তিন বাঁধ: ভারতে উদ্বেগ

সর্বশেষ আপডেট বুধবার, 13 ফেব্রুয়ারি, 2013 12:06 GMT 18:06 বাংলাদেশ সময়
ind_china_river

ব্রহ্মপুত্র

ব্রহ্মপুত্র নদের ওপরে চীনের পরিকল্পিত তিনটি নতুন বড় বাঁধের ফলে ভাটি অঞ্চলে থাকা ভারতে কী প্রভাব পড়বে, তা নিয়ে বিস্তারিত সমীক্ষার দাবী জানিয়েছে দুই ভারতীয় রাজ্য৻

উত্তরপূর্ব ভারতের যে দুটি রাজ্যের ওপর দিয়ে ব্রহ্মপুত্র প্রবাহিত হয়েছে, সেই আসাম আর অরুণাচল প্রদেশ যৌথভাবে ‌এ নিয়ে তাদের আশঙ্কার কথা জানাচ্ছে ভারত সরকারের কাছে৻

আসাম আর অরুণাচল প্রদেশের সরকার বলছে, চীন তাদের সীমানার ভেতরে ব্রহ্মপুত্র – সেদেশে যার নাম সাংপো – নদের ওপরে তিনটি বড় বাঁধ তৈরীর পরিকল্পনা নিতেই পারে৻ কিন্তু ভাটি অঞ্চলে, অর্থাৎ অরুণাচল প্রদেশ আর আসামের মানুষের ওপরে ওই বাঁধের কোনও প্রভাব পড়বে কী না তা নিয়ে বিস্তারিত বৈজ্ঞানিক সমীক্ষা করা হয় নি৻

ind_china_river

চীন-ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে দিয়ে ব্রহ্মপুত্র

তারা বলছে, ওই তিনটি বড় বাঁধ তৈরীর সময়ে সতর্কতা কতটা নেওয়া হয়েছে, সেটাও ভাটি অঞ্চলের দুই রাজ্যের জানা দরকার৻

আসাম আর অরুণাচল প্রদেশের দুই জলসম্পদ মন্ত্রীরা সম্প্রতি যৌথভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে তাদের আশঙ্কার কথা জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৻

আসামের জলসম্পদ মন্ত্রী রাজীবলোচন পেগু বিবিসি বাংলাকে বলছিলেন, “চীন যদি কোনও বাঁধ তৈরীর পরিকল্পনা নেয়, তাহলে ভাটি অঞ্চলের ওপরে তার প্রভাব নিয়ে বিস্তারিত সমীক্ষা চালাতেই হবে৻ বাঁধের ফলে ভাটি অঞ্চলের কোনও দেশই যাতে প্রভাবিত না হয়, সেটা নিশ্চিত করতে হবে৻ আসাম সরকারের এই মনোভাবের সঙ্গে অরুণাচল প্রদেশও একমত৻ তাই দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরাই দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই তিনটি বাঁধের বিস্তারিত সমীক্ষার দাবী জানিয়ে চিঠি লিখছেন৻”

"বাঁধের ফলে ভাটি অঞ্চলের কোনও দেশই যাতে প্রভাবিত না হয়, সেটা নিশ্চিত করতে হবে "

রাজীবলোচন পেগু, আসামের জলসম্পদ মন্ত্রী

ভাটি অঞ্চলে বাঁধের প্রভাব নিয়ে বিস্তারিত সমীক্ষার দাবী জানালেও মি. পেগু স্পষ্টই জানিয়েছেন যে চীন যদি নিজেদের দিকে বাঁধ তৈরী করে, তাতে তাঁদের কোনও আপত্তি নেই ৻

উত্তরপূর্ব ভারতে, বিশেষত ব্রহ্মপুত্রের ওপরে বড় বাঁধ তৈরী বিরোধীতা করে আসছে যে সংগঠনটি, সেই কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি আসাম আর অরুণাচল প্রদেশ সরকারের এই মনোভাবকে দ্বিচারিতা বলে আখ্যা দিচ্ছে৻

সংগঠনের প্রধান অখিল গগৈ বিবিসি বাংলাকে জানান, “বহুজাতিক কোম্পানিগুলো যখন অরুণাচল প্রদেশে বাঁধ তৈরী করছে, তখন ভারত সরকার, আসাম সরকার বা অরুণাচল প্রদেশ সরকার সেটাকে সমর্থন করছে – প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র দিচ্ছে৻ কিন্তু যখন চীন বাঁধ তৈরীর পরিকল্পনা নিয়েছে, তখন ভাটি অঞ্চলের প্রভাব নিয়ে সমীক্ষার দাবী করা হচ্ছে – এই অঞ্চল যাতে প্রভাবিত না হয়, সেটা নিশ্চিত করার দাবী জানানো হচ্ছে৻ এটা তো স্পষ্টতই দ্বিচারিতা৻”

ind_china_river

উপগ্রহ থেকে ব্রহ্মপুত্র

অখিল গগৈ আরও বলছিলেন, গোটা ব্রহ্মপুত্র অববাহিকা ভূ-তাত্ত্বিকভাবে এতটাই স্পর্শকাতর যে এখানে কোনও বাঁধ তৈরী করাই উচিত নয়৻ তাই চীন বা ভারত – দুই সরকারই ব্রহ্মপুত্রের ওপরে বাঁধ তৈরীর পরিকল্পনা থেকে সরে আসুক৻ বাঁধমুক্ত এলাকা হিসাবে ঘোষিত হোক এই অববাহিকা৻

“যেমন ভারত সরকারের বাঁধ তৈরীর বিরুদ্ধে লড়াই চলছে, তেমনই চীনও যদি বাঁধ তৈরীর পরিকল্পনা নিয়ে এগোয়, তাহলে দিল্লীতে চীনা দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ-আন্দোলন শুরু হয়ে যাবে”, বলছিলেন ভারতের দুর্নীতি বিরোধী জন-আন্দোলনের নেতা আন্না হাজারের সহযোগী ও কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতির প্রধান অখিল গগৈ৻

ভারত সরকারের বিদেশ মন্ত্রক বলছে ব্রহ্মপুত্র নিয়ে সর্বোচ্চ পর্যায় সহ বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা চলছে৻

ব্রহ্মপুত্রের বাঁধ নিয়ে কয়েকদিন আগেই বিদেশ মন্ত্রকের সঙ্গে দিল্লির চীনা দূতাবাসের কর্মকর্তাদের আরও এক দফা আলোচনা হয়েছে বলে বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র সৈয়দ আকবরুদ্দিন৻

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻