BBC navigation

কলকাতায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে নিহত অন্তত ১৯

সর্বশেষ আপডেট বুধবার, 27 ফেব্রুয়ারি, 2013 13:14 GMT 19:14 বাংলাদেশ সময়
calcutta_illegal_market_hit_by_deadly_fire

অগ্নিদগ্ধ ভবনটিতে আগুন নেভানোর চেষ্টা চলছে

ভারতের কলকাতা শহরে শিয়ালদহ রেলস্টেশনের কাছে একটি বাজার এলাকায় এক ভবনে অগ্নিকান্ডে অন্তত ১৯ জন মারা গেছেন। আরো বহু লোক গুরুতর আহত হয়েছেন বলে অগ্নি নির্বাপন কর্তৃপক্ষ বলছে।

তারা বলছেন ভব্নটির ভেতরে প্লাস্টিক ও রাবার জাতীয় পদার্থ জমিয়ে রাখা হয়েছিল এবং নিহতদের অনেকেরই মৃত্যু হয়েছে বিষাক্ত ধোঁয়ার কারণে।

অবৈধভাবে তৈরি ভবনটিতে পযাপ্ত অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থা ছিল না বলেও কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

কর্মকর্তারা জানান, ছয়তলা ওই ভবনটিতে আগুন লাগে বুধবার খুব ভোরের দিকে। সে সময় ওই ভবনের ভেতরে অনেকেই ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন।

ওই ভবনটির মধ্যে একটি বাজার চলত অবৈধভাবে, আর সেই সুবাদে রাতেও বহু লোক সেখানে থাকতেন ও ঘুমোতেন।

"ওই ভবন থেকে বেরোনোর একমাত্র পথটি কোনওভাবে বন্ধ ছিল, তাই অনেকেই ভেতর থেকে বেরোতে পারেননি"

জাভেদ খান, পশ্চিমবঙ্গের দমকলমন্ত্রী

অগ্নিকান্ডে এখনও পর্যন্ত ১৯জন নিহত হওয়া ছাড়াও আরও বহু লোক গুরুতর আহত হয়েছেন, কর্তৃপক্ষ আশঙ্কা করছে অগ্নিদগ্ধ ভবনটির ভেতরে আরও লোক আটকেও থাকতে পারেন।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দমকলমন্ত্রী জাভেদ খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সংবাদমাধ্যমকে জানান, প্রাথমিকভাবে তারা ধারণা করছেন ওই ভবনটি থেকে বাইরে বেরোনোর একমাত্র রাস্তাটি কোনও কিছু দিয়ে আটকানো ছিল।

বেরোনোর পথ বন্ধ থাকাতেই আগুন লাগার পর ভবনটি থেকে অনেকে বেরোতে পারেননি, আর তাই হতাহতের ঘটনাও এত বেশি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দুবছর আগে কলকাতারই একটি বেসরকারি হাসপাতাল আমরি-তে আগুন লাগার জেরে অন্তত নব্বইজনের মৃত্যু হয়েছিল।

শহরের বহুতল ভবনগুলিতে অগ্নিকান্ড প্রতিরোধে এরপর নানা সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নেওয়া হলেও তাতে যে বিশেষ কাজ হয়নি, বুধবার শিয়ালদহের এই অগ্নিকান্ড তা আবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻