BBC navigation

বাংলাদেশ সরকার গণহত্যা চালাচ্ছে: খালেদা জিয়া

সর্বশেষ আপডেট শুক্রবার, 1 মার্চ, 2013 12:52 GMT 18:52 বাংলাদেশ সময়

বাংলাদেশের বিরোধী নেত্রী খালেদা জিয়া গত কদিনের পরিস্থিতিকে ‘অত্যন্ত সংকটজনক’ বর্ণনা করে বলেছেন, “সরকার রাজনৈতিক বিরোধীদের দমনে গণহত্যায় মেতে উঠেছে।”

শুক্রবার গুলশানে তাঁর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এর প্রতিবাদে বিএনপির পক্ষ থেকে আগামী মঙ্গলবার সারাদেশে হরতালের ডাক দিয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়া বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকে ঘিরে যে সংঘাতময় পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে, তার পরিপ্রেক্ষিতে তাঁর দলের কঠোর অবস্থান তুলে ধরেন।

সরকার যেভাবে জামায়াতে ইসলামী বিক্ষোভ দমন করছে তাঁর তীব্র সমালোচনা করে খালেদা জিয়া বলেন, “সরকার গণহত্যায় মেতে উঠেছে। কোন দেশের সরকার নিজের দেশের নাগরিকদের বিরুদ্ধে এমনভাবে গণহত্যা চালাতে পারে, এটা আমাদের কল্পনার অতীত।”

অবিলম্বে হত্যা বন্ধের দাবি জানিয়ে তিনি সরকারকে হুঁশিয়ার করে দেন যে, “নইলে এর পরিণাম হবে ভয়াবহ।”

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে তিনি মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে বলেন, “জনগণের টাকায় কেনা অস্ত্র নির্বিচারে জনগণের বিরুদ্ধে ব্যবহার করবেন না। সরকারের অন্যায় হুকুমে আপনারা গণহত্যাকারীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হবেন না।”

ভয়াবহ সংকট

খালেদা জিয়া বলেন, বাংলাদেশ এখন এক ভয়ানক সংকটে, বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর এত ভয়াবহ অবস্থা আর কখনো ছিল না।

তিনি বলেন, “গোটা জাতিকে আজ বিভক্ত করে ফেলা হয়েছে। বাংলাদেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের ধর্ম ইসলাম। কিন্তু ইসলাম এবং স্বাধীনতাকে পরিকল্পিতভাবে প্রতিপক্ষ বানিয়ে মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেয়া হয়েছে।”

বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে যে বিচার চলছে, সে প্রসঙ্গে খালেদা জিয়া বলেন, “যুদ্ধাপরাধের বিচার আমারও চাই। কিন্তু এই বিচার প্রক্রিয়া নিয়ে শুধু দেশে নয়, আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলেও প্রশ্ন। উঠেছে।

তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু করার আগে এ ব্যাপারে জাতীয় ঐকমত্য দরকার ছিল।

যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে গত প্রায় চার সপ্তাহ ধরে ঢাকার শাহবাগে তরুণদের যে বিক্ষোভ চলছে, খালেদা জিয়া তারও কঠোর সমালোচনা করেন।

তিনি বলেন, শাহবাগ থেকে সবার ফাঁসির দাবির প্রতি প্রধানমন্ত্রী একাত্মতা ঘোষণা করেছেন। কোন সভ্য গণতান্ত্রিক দেশে এ ধরণের ঘটনা নজিরবিহিন। এমন পরিস্থিতিতে ট্রাইব্যুনালের পক্ষে স্বাধীন এবং নিরপেক্ষ বিচার করা সম্ভব নয়। এই ট্রাইব্যুনালের যে কোন রায়ই এখন প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে থাকবে।”

দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃহস্পতিবার হতে সংখ্যালঘুদের ওপর যে আক্রমণ শুরু হয়েছে, তার জন্যও তিনি সরকারকে দায়ী করেন।

খালেদা জিয়া বলেন, সরকার পরিকল্পিতভাবে সংখ্যালঘুদের ওপর আক্রমণ চালিয়ে বিরাজমান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ধ্বংসের চেষ্টা চালাচ্ছে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻