BBC navigation

বাংলাদেশে পাচারের পথে বিরাট অস্ত্রের চালান উদ্ধার

সর্বশেষ আপডেট শনিবার, 9 মার্চ, 2013 17:24 GMT 23:24 বাংলাদেশ সময়
ak 47

এ.কে. ৪৭ রাইফেল

ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য মিজোরামে পুলিশ ও কেন্দ্রীয় আধাসামরিক বাহিনী জানিয়েছে, বাংলাদেশে পাচার করার জন্য বিদেশ থেকে আনা এক বিরাট অস্ত্রের চালান তারা উদ্ধার করেছে।

এই অস্ত্র পাচারের সঙ্গে জড়িত তিনজনকে আটকও করা হয়েছে।

মিজোরামের পুলিশ কর্তৃপক্ষ ও কেন্দ্রীয় আধাসামরিক বাহিনী আসাম রাইফেলসের কর্মকর্তারা জানান, এই সব অস্ত্রশস্ত্র বার্মা থেকে এনে বাংলাদেশে পাঠানো হচ্ছিল বলেই তারা ধারণা করছেন।

কলকাতায় বিবিসি বাংলার সংবাদদাতা অমিতাভ ভট্টশালী বলছেন মিজোরামের পুলিশ প্রধান অলোক কুমার ভার্মা এবং উপপ্রধান এ কে পট্টনায়ক তাকে জানিয়েছেন তাদের হিসাব অনুযায়ী গত দুদিন অর্থাৎ ৭ এবং ৮ই মার্চ মিজোরামের আইজল শহরের কাছ থেকেই তারা বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করেছে।

পুলিশের তালিকা অনুযায়ী তারা ৪৬টি এ কে ৪৭ বন্দুক, তিনটি লাইট মেশিনগান, সেনাবাহিনীতে ব্রাউনি নামে পরিচিত দুটি রাইফেল , প্রচুর গোলাবারুদ এবং এ কে ৪৭ ও লাইট মেশিনগানের প্রচুর তাজা গুলি তারা উদ্ধার করেছে।

মিজোরাম পুলিশের উপপ্রধান জানিয়েছেন অস্ত্র চালানের সঙ্গে জড়িত তিনজনকে তারা গ্রেপ্তার করেছেন।

তিনি বলেছেন এরা বার্মার নাগরিক হলেও বর্তমানে ভারতেরই বাসিন্দা।

মিজোরামের পুলিশ বলছে এইসব অস্ত্রের মধ্যে কিছু সিঙ্গাপুরে তৈরি, যার মধ্যে রয়েছে একটি এলএমজি বা লাইট মেশিনগান।

আসাম রাইফেলস্‌ আর মিজোরাম পুলিশ গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আইজল শহরের কাছে যে বিমানবন্দর রয়েছে তার কাছে দুটি স্থান থেকে পরপর দুদিন অর্থাৎ ৭ এবং ৮ই মার্চ তল্লাশি চালিয়ে এসব অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করেছে বলে বিবিসি বাংলার সংবাদদাতাকে জানিয়েছে।

পুলিশ আরো জানিয়েছে এইসব অস্ত্রশস্ত্র বার্মা থেকে এনে মিজোরামের মধ্যে দিয়ে আপাতত ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় ত্রিপুরা রাজ্যে পাঠানো হচ্ছিল। সেখান থেকে এইসব অস্ত্রশস্ত্রের চূড়ান্ত গন্তব্য ছিল বাংলাদেশ বলে মিজোরাম পুলিশ ধৃত তিনজনকে জেরা করে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছেন।

তবে বাংলাদেশের কোন্‌ ব্যক্তি বা কোন্ সংগঠনের কাছে এসব অস্ত্র পাঠানো হচ্ছিল, সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে মিজোরাম পুলিশ এখনও পর্যন্ত কিছু জানাতে পারে নি।

পুলিশ বলছে ধৃতদের এখনও জেরা চলছে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻