BBC navigation

গ্যাস পাইপলাইনে সংযুক্ত হচ্ছে ইরান এবং পাকিস্তান

সর্বশেষ আপডেট সোমবার, 11 মার্চ, 2013 02:25 GMT 08:25 বাংলাদেশ সময়
iran map

পাকিস্তান এবং ইরানের প্রেসিডেন্টরা আজ দুদেশের মধ্যে একটি বহু প্রতীক্ষিত গ্যাস পাইপলাইনের উদ্বোধন করতে যাচ্ছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধিতা এবং অবরোধ আরোপের ঝুঁকির বিষয়ে বারবার সতর্কতা স্বত্বেও পাকিস্তান এই পাইপলাইনের পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

পাকিস্তান বলছে, দেশটির দীর্ঘস্থায়ী জ্বালানী সংকট কাটিয়ে ওঠার জন্য মাল্টি বিলিয়ন ডলারের এই প্রকল্পটি অপরিহার্য।

বেশ কয়েক বছর আগে প্রথম যখন এই পাইপলাইনটির কথা আলোচনায় আসে, তখন একে ‘শান্তির পাইপলাইন’ বলে অভিহিত করা হয়েছিল। এই পাইপলাইনের মাধ্যমে ইরান থেকে পাকিস্তান এবং ভারত দুদেশেই গ্যাস সরবরাহের কথা বিবেচনা করা হচ্ছিল।

ভারত এই পরিকল্পনা বাতিল করে। তবে ইরান এবং পাকিস্তান পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যায়, আর এরই মধ্যে ইরানের অংশে পাইপলাইন তৈরির কাজও হয়ে গেছে। এখনো পর্যন্ত পাকিস্তানের দিক থেকে কোন নির্মাণকাজ শুরু করা হয়নি, যদিও দেশটির অনেক শিল্প-কারখানা বিদ্যুৎ এবং গ্যাস সংকটের কারণে বেশ নাজুক অবস্থানে চলে গেছে।

পাকিস্তান বলছে, আজই তারা ৭৮০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই পাইপলাইনটি তৈরির কাজ শুরু করবে এবং কোন ধরণের চাপের কাছেই তারা নতি স্বীকার করবে না।

পাকিস্তানের মিত্রদের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র প্রকাশ্যেই বলে আসছে, এই পাইপলাইনটির মাধ্যমে যদি ইরানকে আরও গ্যাস বিক্রির সুযোগ করে দেয়া হয়, তবে ইরানের পারমাণবিক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে চাপ প্রয়োগের চেষ্টাকে হেয় করা হবে। তারা বলছে, জ্বালানী সংকট মোকাবেলার জন্য পাকিস্তানের আরও পথ খোলা রয়েছে।

পাকিস্তানের কর্মকর্তারা বলছেন, আগামী দুবছরের মধ্যেই এই পাইপলাইনটি তৈরি হয়ে যাবে। তবে তারা স্বীকার করছেন, উত্তেজনাপূর্ণ বেলুচিস্তানের মধ্য দিয়ে এই পাইপলাইনটি নিয়ে যাওয়া একটি বড় চ্যালেঞ্জ হবে।

এছাড়াও অর্থনৈতিক টানাপড়েনে থাকা পাকিস্তানের জন্য এর নির্মাণকাজের খরচও স্পষ্টভাবেই একটি বড় ইস্যু হয়ে দাঁড়াবে। তবে সরকার দাবী করছে, তারা এই তহবিল যোগাড় করতে পারবে।

সম্পর্কিত বিষয়

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻