রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম পুনরায় চালুর আদেশ দিল গ্রীসের আদালত

  • ১৮ জুন ২০১৩
ert demo
Image caption ইআরটি বন্ধের প্রতিবাদে বিক্ষোভ।

গ্রীসের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক আদালতে দেশটির জাতীয় গণমাধ্যমের সম্প্রচার পুনরায় শুরু করবার নির্দেশ দিয়েছে।

অর্থ সাশ্রয়ের জন গত সপ্তায় হেলেনিক ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন বা ইআরটির সম্প্রচার অপ্রত্যাশিতভাবে বন্ধ করে দেয় সরকার।

তবে ইআরটিকে ছোট প্রতিষ্ঠানে পরিণত করবার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী অ্যান্টোনিস সামারাসের পরিকল্পনায় সমর্থন দিয়ে আদালত বলছে, এই পরিকল্পনা পুরোপুরি বাস্তবায়ন না করা পর্যন্ত সম্প্রচার অব্যাহত রাখতে হবে।

গত মঙ্গলবার রাতে সংবাদ চলার সময় দর্শকরা রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেলের পর্দাটি কালো হয়ে যেতে দেখেন। সিদ্ধান্তটি ছিল অপ্রত্যাশিত, তবে নিশ্চিতভাবে পয়সা বাঁচানোর জন্যই এটি করে ঋণভারে জর্জরিত গ্রীসের সরকার। এ সিদ্ধান্তের জের হিসেবে ব্যাপক অসন্তোষ দেখা দেয় গ্রীসজুড়ে। গত সপ্তাহজুড়ে দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছিল বিক্ষোভ।

এরকম একটি প্রেক্ষাপটে গ্রীসের শীর্ষ প্রশাসনিক আদালত কাউন্সিল অব স্টেট এক আদেশে বলছে, সরকার যতক্ষণ না পর্যন্ত একটি নতুন জাতীয় গণমাধ্যম কমিটি গঠন করছে, ততক্ষণ পর্যন্ত ইআরটির সম্প্রচার চালু রাখতে হবে।

ইআরটির একজন টিভি উপস্থাপিকা ক্রাইসা রুমেলিয়োটি বলেন, "কোনরকম আলোচনা ছাড়াই গণমাধ্যম বন্ধ করার সিদ্ধান্তটি নিয়ে সরকার ভুল করেছে।"

এমন সময় এ টিভি চালু করার নির্দেশ এলো যখন উদ্ভূত পরিস্থিতি সামাল দিতে গ্রীসের প্রধানমন্ত্রী অ্যান্টোনিস সামারাস সরকারী জোটের শরিকদের সাথে জরুরী বৈঠক করেছেন।

মিস্টার সামারাসের ভাষায় ইআরটি ছিল একটি দুর্নীতির আখড়া।

ইআরটির অধীনে তিনটি জাতীয় টেলিভিশন চ্যানেল এবং চারটি জাতীয় রেডিও স্টেশন ছাড়াও ভয়েস অফ গ্রীস নামের একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমও রয়েছে।

এই গণমাধ্যম বন্ধ করবার ফলে আড়াই হাজার লোক চাকুরী হারাবে। চাকরি বাঁচাতে তাই আদালতের শরণাপন্ন হয়েছিলো ইআরটির ইউনিয়ন।