বাংলাদেশে জামায়াতে ইসলামীর হরতালে সংঘর্ষ, অন্তত ২৫জন আহত

  • ১৩ অগাস্ট ২০১৩
Image caption জামায়াতের ডাকা ৪৮-ঘণ্টার হরতালের প্রথম দিনে ঢাকার বানিজ্য কেন্দ্র মতিঝিল।

বাংলাদেশে জামায়াতে ইসলামীর ডাকা ৪৮-ঘণ্টা হরতালের প্রথম দিনে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে সংঘর্ষের খবর পাওয়া যাচ্ছে।

পুলিশ বলছে, দেশের পশ্চিমাঞ্চলীয় জেলা মেহেরপুরে জামায়াতে ইসলামী কর্মীদের সাথে সংঘর্ষে একজন ওসিসহ দশজন পুলিশ আহত হয়েছে।

মেহেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিবিসিকে বলছেন, জামায়াতের মিছিল থেকে পুলিশের উপর ইট-পাটকেল মারা শুরু করলে পুলিশ ‘’জানমাল রক্ষার্থে টিয়ার শেল ছোড়ে’’।

পুলিশ বলছে, জামায়াত কর্মীদের দিক থেকে গুলি করা হয়েছে, এবং আহত তিনজন পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। স্থানীয় সাংবাদিকরা বলছেন সংঘর্ষের সময় পুলিশ রাবার বুলেট ব্যবহার করে।

তবে মেহেরপুর জেলার জামায়াতে ইসলামীর আমীর রুহুল আমিন বিবিসিকে বলেছেন, তাদের অন্ততপক্ষে ১২জন কর্মী আহত হয়েছে, যাদের মধ্যে একজন গুলিবিদ্ধ।

Image caption শাহবাগ-ভিত্তিক মঞ্চ হরতালের প্রতিবাদে মিছিল করে।

নির্বাচন কমিশনে জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণা করে হাই কোর্টের আদেশের প্রতিবাদে দলটি এই হরতাল আহ্বান করে।

হরতাল শুরু হবার পর থেকে সিলেট, রাজশাহী, বরিশালসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্ত ভাঙচুর ও হাতবোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় সাংবাদিকরা জানাচ্ছেন।

বগুড়া, কুমিল্লা ও ময়মনসিংহে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

জামায়াতের হরতালের প্রতিবাদে শাহবাগ-ভিত্তিক 'গণজাগরন মঞ্চ' ঢাকায়মিছিল বের করে। তারা যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি এবং জামায়াত নিষিদ্ধ করার পক্ষে স্লোগান দেয়।

সম্প্রতি হাই কোর্ট একটি রিট আবেদনের উপর শুনানির পর জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন ‘অবৈধ’ বলে আদেশ দেয়।

হাই কোর্ট জামায়াতকে এই আদেশের বিরুদ্ধে সরাসরি সুপ্রিম কোর্টে আপিল করার সার্টিফিকেট দিলে, জামায়াত আপিল দায়ের করে।

তবে, আপিল শেষ না হওয়া পর্যন্ত হাই কোর্টের আদেশের স্থগিতাদেশ চেয়ে জামায়াতের আবেদন একজন চেম্বার বিচারক নাকচ করে দেন।