কিম জং-আনের চাচার মৃত্যুদন্ড কার্যকর

jang song thaek
Image caption বন্দী জ্যাং সং থেক

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম ঘোশণা করেছে যে দেশটির নেতা কিম জং-আনের চাচা জ্যাং সং থেকএর মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়েছে।

রিপোর্টে মি. থেককে একজন 'বিশ্বাসঘাতক' বলে আখ্যায়িত করে বলা হয় তিনি ক্ষমতা দখল করার চেষ্টা করছিলেন। বলা হয়েছে যে তাকে একটি বিশেষ সামরিক আদালতে হাজির করা হয় এবং এর পরপরই তার মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়।

অনেকেই মনে করছেন, মি থেকের এই মৃত্যুদন্ড কিম জং-আনের নিজ ক্ষমতা সংহত করার একটি চেষ্টা।

মি. থেক-এর বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ করা হয় যে তিনি দুর্নীতি ও অসদাচরণের সাথে জড়িত ছিলেন, এবং দেশের অর্থনীতিকে 'নিয়ন্ত্রণের অতীত এক বিপর্যয়ের পথে' নিয়ে গিয়েছিলেন।

সংবাদের ওপর কঠোর নিয়ন্ত্রণের জন্য সুপরিচিত দেশটিতে মি. থেকের পতনের খবরটি ব্যাপক প্রচার পায়।

উত্তর কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থার খবরে জ্যাং সং থেকের কঠোর সমালোচনা করা হয়।তবে বাইরের বিশ্ব তাকে একজন সংস্কারপন্থী বলে মনে করতো, যিনি এমন একটি প্রশাসন গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন যাকে বহির্বিশ্ব স্বীকৃতি দেবে।

উত্তর কোরিয়ার প্রধান মিত্র চীন বলেছে, এ ঘটনা দেশটির অভ্যন্তরীণ ব্যাপার, এবং তারা আশা করছে যে দেশটিতে স্থিতিশীলতা বজায় থাকবে।

প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট পার্ক গিউন-হি বলছেন, কিম জং আন এক ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে ক্ষমতা সংহত করার চেষ্টায় রত।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তার প্রতিক্রিয়ায় বলেছে, উত্তর কোরিয়ার শাসকরা কত নিষ্ঠুর প্রকৃতির - এই ঘটনাটি তার আরেকটি দৃষ্টান্ত।