জুতার তলায়, গুঁড়ো সাবানের প্যাকেটে সোনা

বিবিসি, স্বর্ন
ছবির ক্যাপশান,

ডিটারজেন্টের প্যাকেট এবং জুতার ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয় চোরাই স্বর্ণ। (ফাইল ছবি)

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মঙ্গলবার রাতে এবং বুধবার ভোরে দুই-দফা চোরাই স্বর্ণের চালান উদ্ধার করা হয়েছে।

কাস্টমস কর্তৃপক্ষ মঙ্গলবার রাতে ১৪ কেজি স্বর্ণসহ একজনকে আটক করার পর বুধবার সকালে আরেকজন যাত্রীর জুতার ভেতর থেকে ৫০০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার করে।

ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাস্টমসের সহকারী কমিশনার আহসানুল কবীর বিবিসি বাংলাকে বলেন, গার্মেন্টস পণ্যের ঘোষণা দিয়ে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ১৪ কেজি স্বর্ণের ওই চালান বহন করে আনা হয়।

"আমদানী কৃত পণ্যের দুটি কার্টনের মধ্যে ডিটারজেন্ট পাউডারের প্যাকেটের ভেতর ছিল এসব স্বর্ণ। পরে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে তল্লাশি করে বিমানবন্দরে কার্গো রাখার স্থানে চালানের ভেতরে লুকানো স্বর্ণের বার ও চেইন পাওয়া যায়" বলেন মি কবীর।

"গার্মেন্টস কম্পানির নামে পণ্য বুকিং দেয়া হয়েছিল। ফলে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি" জানান মি. কবীর।

উদ্ধার করা এসব স্বর্ণের মূল্যমান সাত কোটি টাকা বলে ধারণা করছেন কাস্টমস কর্মকর্তারা।

এরপর আজ ভোরেই মালয়েশিয়া থেকে আসা একজন যাত্রীর জুতার ভেতর থেকে চোরাই স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। কর্তৃপক্ষ বলছে, সন্দেহজনক মনে হওয়ার পর ওই ব্যক্তিকে তল্লাশি করে তার জুতার তলা থেকে স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়।