মন্ত্রীর বাড়িতে বুলেটপ্রুফ বাথরুমঃ সমালোচনার ঝড়

তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীর নতুন বাসভবন

ছবির উৎস, K Chandrashekhar Rao

ছবির ক্যাপশান,

তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীর নতুন বাসভবন

বুলেটপ্রুফ বাথরুম এবং আড়াইশো আসনের এক মিলনায়তন-সহ এক প্রাসাদোপম বাড়ী তৈরি করে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি করেছেন ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

প্রায় নয় হাজার বর্গ মিটার জায়গা জুড় তৈরি এই বাড়ির পেছনে খরচ হয়েছে ৭০ লাখ মার্কিন ডলারের বেশি।

তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও মাত্র গতকালই এই নতুন বাড়িতে উঠেছেন। তবে এর আগে তাঁর গুরু চিন্না জিয়ার স্বামী মন্ত্র পড়ে নতুন বাড়ির জন্য আশীর্বাদ করেন।

মুখ্যমন্ত্রীর এই নতুন বাসভবনের নাম 'প্রগতি ভবন'।

প্রাচীন হিন্দু বাস্তুশাস্ত্র মেনে নাকি এই নতুন বাড়ি তৈরি করা হয়।

মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রশেখর রাও বাস্তুশাস্ত্রে খুবই বিশ্বাস করেন। এর আগে তিনি তেলেঙ্গানা রাজ্যের সচিবালয় ভবন ভেঙ্গে ফেলার উদ্যোগ নিয়েছিলন, কারণ এই ভবনটি নাকি বাস্তুশাস্ত্র অনুযায়ী তেলেঙ্গানার জন্য 'অশুভ'।

ছবির উৎস, Mohammad Aleem

ছবির ক্যাপশান,

নতুন বাড়িতে উঠার আগে মন্ত্রপাঠ করে আশীর্বাদ করছেন গুরু

তবে নিজের জন্য এরকম একটি বিলাসবহুল বাড়ি বানিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন মিস্টার রাও।

কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন, মন্ত্রীর বুলেটপ্রুফ বাথরুমের দরকার পড়লো কেন?

টুইটারে চন্দন সিং নামে একজন মন্তব্য করেছেন, এই লোকটি এমনকি বাথরুমে পর্যন্ত শান্তি খুঁজে পাচ্ছে না।

লোকেশ নামে আরেকজন মন্তব্য করেছেন, প্রিয় কে চন্দ্রশেখর রাও, বাথরুমকে বুলেটপ্রুফ নয়, ওয়াটারপ্রুফ করতে হয়। আপনি কি বাথরুম থেকে কোনদিন বেরুবেন না?