ভারতের সিকিম বিমানবন্দর কি বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর বিমানবন্দর?

রানওয়ে ছবির কপিরাইট RAJIV SRIVASTAVA
Image caption রানওয়ের দুই পাশে গভীর উপত্যকা রয়েছে।

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিম-এ নবনির্মিত বিমানবন্দরটি পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর বিমানবন্দরগুলোর মধ্যে অন্যতম।

এ বিমানবন্দরটি ভারতের শততম বিমানবন্দর । প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সোমবার এ বিমানবন্দর উদ্বোধন করেন।

পৃথিবীর তৃতীয় সর্বোচ্চ পর্বত কাঞ্চনজঙ্ঘা এখানে অবস্থিত। এ রাজ্যের সাথে তিব্বত, ভুটান এবং নেপালের সংযোগ রয়েছে।

সিকিম রাজ্যের রাজধানী গ্যাংটক থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে এ বিমানবন্দরটি অবস্থিত।

ছবির কপিরাইট RAJIV SRIVASTAVA
Image caption পেকং গ্রামে এ বিমানবন্দর অবস্থিত।

চীনের সীমান্ত থেকে এ বিমানবন্দরটির দূরত্ব ৬০ কিলোমিটার।

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪৫০০ ফুট উঁচুতে ২০১ একর জায়গায় উপর পেকং গ্রামে এটি নির্মাণ করা হয়েছে।

১.৭৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের রানওয়ের দুইপাশে গভীর উপত্যকা রয়েছে।

বিমানবন্দরটিতে দুটি পার্কিং বে এবং একটি টার্মিনাল ভবন রয়েছে। একসাথে ১০০ যাত্রী ব্যবস্থাপনা করা যাবে এখানে।

ছবির কপিরাইট RAJIV SRIVASTAVA
Image caption বিমান বন্দর যে জায়গায় নির্মাণ করা হয়েছে সেখানকার মাটি যাতে না ভাঙ্গে সেজন্য চারপাশে দেয়াল দেয়া হয়েছে।

একদিকে প্রাকৃতিক গঠন এবং অন্যদিকে বৈরি আবহাওয়ার কারণে এ বিমানবন্দর নির্মাণ করা বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল।

পুরো কাজ শেষ করতে নয় বছর সময় লেগেছে।

প্রকৌশলীরা বলছেন বিমান বন্দর নির্মাণে সময় প্রধান চ্যালেঞ্জ ছিল দুটি।

প্রথমত; রানওয়ে তৈরির সময় মাটির কাজ করা এবং দ্বিতীয়ত; পর্বতের সরু রাস্তা দিয়ে মালামাল বহন করা।

ছবির কপিরাইট RAJIV SRIVASTAVA
Image caption এ বিমান বন্দর তৈরি করতে নয় বছর সময় লেগেছে।

সিকিম অঞ্চলে বর্ষাকাল থাকে এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত। এ সময়টিতে নির্মাণ কাজের অনেক ব্যাঘাত হয়েছে।

এছাড়া পার্বত্য ভূমি এবং ভূমিকম্পের প্রবণতা বেশি থাকার কারণে নির্মাণ কাজে বাড়িত চ্যালেঞ্জ যোগ করেছে।

বিমানবন্দরের চারপাশে গভীর উপত্যকা থাকার কারণে নিচ থেকে বিমানবন্দরের ভূমি পর্যন্ত ২৬৩ ফুট উঁচু দেয়াল দেয়া হয়েছে।

ছবির কপিরাইট RAJIV SRIVASTAVA
Image caption বিমানবন্দরের মনোমুগ্ধকর প্রকৃতি অনেকের নজরে আসবে।

বিমানবন্দর নির্মাণ কাজের দায়িত্বে থাকা ভারতীয় কোম্পানি জানিয়েছে এটি হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু দেয়ালগুলোর অন্যতম।

আগামী ৪ অক্টোবর থেকে এ বিমানবন্দরটিতে বাণিজ্যিক ফ্লাইট কার্যক্রম পরিচালনা শুরু হবে।

আরও পড়তে পারেন:

যেসব বিমানবন্দর এবং সংস্থা মার্কিন নিষেধাজ্ঞার আওতায়

সংস্কার করা হবে নেপালের ঝুঁকিপূর্ণ ত্রিভুবন বিমানবন্দর

আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না
ফিলিস্তিনে বন্ধ হয়ে যাওয়া এক বিমানবন্দর। ১৯৯৮ সালে এটি চালু হয়েছিল।
ছবির কপিরাইট RAJIV SRIVASTAVA
Image caption বিমানবন্দরের অভ্যন্তরের চিত্র।

আশা করা হচ্ছে, এ বিমানবন্দরটি সিকিমের পর্যটন খাতকে আরো এগিয়ে নেবে।

সিকিম অঞ্চলে বেশ কিছু উঁচু পর্বতের চূড়া, হিমবাহ এবং লেক রয়েছে।