ঢাকায় পাকিস্তানি হাইকমিশনে কম্পিউটার চুরির প্রতিবাদ

ইসলামাবাদে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তর এলাকা।
Image caption ইসলামাবাদে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তর এলাকা।

বাংলাদেশের ঢাকায় পাকিস্তানি হাইকমিশনে কম্পিউটার চুরি যাওয়ার বিষয়ে পাকিস্তানী পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে বাংলাদেশ সরকারের কাছে কঠোর প্রতিবাদ পাঠানো হয়েছে।

কয়েকদিন আগে পাকিস্তানি হাইকমিশনের কনস্যুলার সেকশনে কিছু চোর ঢুকে সেখান থেকে বেশ কয়েকটি কম্পিউটার চুরি করে নিয়ে গেছে, বলছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দফতর থেকে মঙ্গলবার দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ঘটনাটি সাথে সাথেই ঢাকায় স্থানীয় পুলিশকে জানানো হয়েছে এবং একটি এফআইআর নিবন্ধন করা হয়েছে।

ইসলামাবাদ দাবি করেছে যে তারা বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কেও বিষয়টি জানিয়েছে এবং হাই কমিশনের নিরাপত্তা বাড়ানোর জন্যেও তারা সরকারকে অনুরোধ করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, পাকিস্তানি হাই কমিশনের ভবন কূটনৈতিক এলাকায় অবস্থিত যা অত্যন্ত সুরক্ষিত এলাকা। এরকম একটি জায়গায় এভাবে চুরির ঘটনা বড় রকমের উদ্বেগের কারণ।

"আমরা ঢাকা ও ইসলামাবাদে বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের কাছে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছি। যেহেতু হাই কমিশনটি বাংলাদেশে তাই তার নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব বাংলাদেশ সরকারের।"

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দফতর বাংলাদেশ সরকারকে এই ঘটনার তদন্ত করা এবং এর ফলাফল পাকিস্তানকে জানানোর দাবি জানিয়েছে। চোরদের গ্রেফতার করে তাদেরও বিচারেরও দাবি জানানো হয়েছে বিবৃতিতে।

আরো পড়তে পারেন:

জনগণের বুকে গুলি চালাবেন না: তারেক রহমান

শেখ তন্ময়কে নিয়ে হইচই, তিনি কতটা জানেন?

বেঁচে থাকার জন্যে কেন ৫৩৬ খৃস্টাব্দ ছিল সবচেয়ে ভয়াবহ?

বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, পাকিস্তান হাই কমিশনে চুরির ব্যাপারে তাদের কিছু জানা নেই।

তবে ঢাকায় কূটনৈতিক নিরাপত্তা বিভাগের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার হায়াতুল ইসলাম খান বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, চুরির এই ঘটনা সম্পর্কে তারা অবহিত আছেন। বিষয়টি এখন তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

সম্পর্কিত বিষয়