রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী মিতা হক

আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী মিতা হক৷ সঙ্গীতপ্রেমী পরিবারে বড় হওয়ায় গানের জন্য আলাদা কোন স্কুল বা একাডেমীতে ভর্তি হননি৻

Image caption মিতা হক: সঙ্গীতপ্রেমী পরিবারে জন্ম

প্রথমে চাচা ওয়াহিদুল হক এবং পরে ওস্তাদ মোহাম্মদ হোসেন খান ও সনজিদা খাতুনের কাছে বাড়িতেই গান শেখেন তিনি৷

এরপর ১৯৭৭ সাল থেকে নিয়মিতভাবে গণমাধ্যমে গাইতে শুরু করেন৷

মিতা হক বর্তমানে রবীন্দ্রসংগীত সম্মেলন পরিষদের সহসভাপতি যে সংগঠনটি ৮০র দশকে শুরু হয়ে পরে দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়৻

শিল্পীদের মধ্যে এই বিভক্তি বাংলাদেশের সংস্কৃতি চর্চার জন্য নেতিবাচক কিনা এর উত্তরে তিনি বলেন, এই দুই ধারাই আলাদাভাবে ভিন্ন লক্ষ্য নিয়ে চলছে এবং দুটো ধারাই বাংলাদেশের সংস্কৃতি চর্চার জন্য জরুরী৷

প্রথিতযশা পরিবারের সদস্য হওয়াতেই কি তার জায়গা করে নিতে কোন সমস্যা হয়নি? এর জবাবে মিতা হক বলেন, তার পরিবারের কোন সদস্য কখনো তাকে তারকা বানানোর চেষ্টা করেনি৷

বাংলাদেশের অভিজ্ঞ রবীন্দ্রসংগীত শিল্পীরা একটি বিশেষ ঘরানা তৈরী করে রেখে তাতে নতুন কাউকে ঢুকতে দেননা এ অভিযোগ কতটা সত্য তা জানতে চাওয়ায় তিনি বলেন, কাউকে ঢুকতে না দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না৻

তবে তারা যেটি বলেন, রবীন্দ্রসংগীত নিয়ে নিরীক্ষার কোন সুযোগ নেই, ফিউশন রবীন্দ্রসংগীত অচিরেই মিলিয়ে যাবে৷

মিতা হকের মতে এই প্রজন্ম এখনো রবীন্দ্রসংগীত শোনে এবং ভালবাসে৻

রবীন্দ্রসংগীত সম্মেলন পরিষদের উত্সবে গেলে দেখা যাবে তিনদিন ব্যাপী রাত জেগে কিভাবে মানুষ রবীন্দ্রসংগীত শুনছে৷

বিবিসির সাক্ষাতকার অনুষ্ঠানে মিথিলা ফারজানার সাথে আলাপ করেছেন মিতা হক