ই-ঘটক পাখিভাই

তথ্যপ্রযুক্তির ফলে মানুষে মানুষে যোগাযোগ যতই বাড়ছে, ততই একে বুদ্ধি খাটিয়ে নানা বিচিত্র কাজে লাগাচ্ছেন নানা জনে৻

বাংলাদেশে রাজধানী ঢাকায় একজন বিয়ের ঘটক ‘পাখিভাই‘ তাঁর ঘটকালির কাজেও ব্যবহার করছেন ইন্টারনেট৻ একসময় যে ঘটকরা পায়ে হেঁটে বাড়ি বাড়ি ঘুরে বিয়ের সম্বন্ধ করতেন, তাঁদেরই মতন একজন এখন ব্যবহার করছেন তথ্য প্রযুক্তি, কিন্তু কী পরিবর্তন এসেছে তাঁর কাজের ধারায়?

ইন্টারনেটের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ এখন বিচিত্র এবং ব্যাপক চেহারা নিয়েছে সারা দুনিয়ায়৻

ফেসবুক, টুইটার, মেসেঞ্জার বা এমএসএন, ভিডিও ফোন - প্রতিনিয়ত আসছে নতুন নতুন প্রযুক্তি এবং এই প্রযুক্তিকে নানা ভাবে কাজে লাগানো হচ্ছে৻ কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না যে বাংলাদেশে এখন অনলাইনে এমনকি বিয়ের ঘটকালিও হচ্ছে৻

পাখিভাই-এর ই-ঘটকালি

ওয়েবসাইটে বিয়ের যোগ

ওয়েবসাইটে বিয়ের যোগ

পাখিভাই ঘটকালির পেশায় আছেন ৩৭ বছর ধরে৻

পাখিভাইয়ের আসল নাম কাজী আশরাফ হোসেন৻ ঘটকজীবনের প্রথম দিকে তিনি যখন বাড়ি বাড়ি ঘুরে ঘটকালি করতেন, তখন তাঁর এক বন্ধু তাঁকে পাখির সাথে তুলনা করে তাঁর নাম দেন পাখিভাই৻ সেই থেকে ওই নাম এমনভাবে ছড়িয়ে গেছে যে অনেকেই তাঁকে শুধু পাখিভাই নামেই জানেন, জানেন না তাঁর আসল নামটি৻

পাখিভাই নামে এই ই-ঘটকের অফিসে রয়েছে তিনটি কম্পিউটার৻ এখানে ইন্টারনেটের মাধ্যমে এবং পাখিভাইয়ের মধ্যস্থতায় পাত্রপাত্রী বা তাদের পরিবারের মধ্যে যোগাযোগ হয় এবং অনেক যোগাযোগই শেষ অবধি বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়৻

পাখিভাইয়ের রয়েছে একটি নিজস্ব ওয়েবসাইট, যাতে তাঁদের সম্পর্কে সবরকম তথ্য এবং রেজিস্ট্রেশন ফর্ম দেয়া রয়েছে৻

আগের চাইতে বেশি দ্রুততায় ও অনেক কম খরচে, তথ্য, দলিলপত্র, ও ছবি বিনিময় করতে পারছি৻

পাখীভাই

কিভাবে এই ই-ঘটকালি কাজ করে তা ব্যাখ্যা করে পাখিভাই বলেন, পাত্র বা পাত্রী পক্ষকে প্রথমে একটি নির্ধারিত ফি দিয়ে নাম নিবন্ধন করতে হয় - যাতে তাদের নিজেদের সম্পর্কে তথ্য এবং তারা কেমন পাত্র বা পাত্রী চান সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে হয়৻

এর পর পাখিভাই তাদের চাহিদার সাথে মেলে এমন পাত্র বা পাত্রীর সম্পর্কে তাদের তথ্য দেন এবং যোগাযোগ করান৻

ওয়েবসাইটে পাখী ভাই

ওয়েবসাইটে পাখী ভাই

১৯৭৩ সাল থেকে পাখিভাই এই ঘটকালি ব্যবসা করছেন৻ এ পর্যন্ত তিনি প্রায় আট হাজার বিয়ে দিয়েছেন৻

তবে তিনি ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন গত চার-পাঁচ বছর ধরে৻ পাখিভাই বলছেন, এতে তার কাজের সুবিধা এবং আওতা অনেক বেড়েছে৻

‘এই তথ্য প্রযুক্তি অর্থাৎ ই-মেল বা ভিডিও কনফারেনসিং করে আমি নানা দেশের পাত্রপাত্রী বা তাদের অভিভাবকদের সাথে যোগাযোগ করতে পারছি,‘ পাখিভাই বলেন,

‘আগের চাইতে অনেক বেশি দ্রুতগতিতে এবং অনেক কম খরচে তথ্য, দলিলপত্র, এবং ছবি বিনিময় করতে পারছি৻‘

বাংলাদেশের সমাজে ঘটকালির ব্যাপারটা ঘটে অনেকটাই লোকের চোখের আড়ালে, গোপনে৻ তাছাড়া ঘটকালির মাধ্যমে যারা বিয়ে করেন তারা প্রায় কেউই বিয়ের আগে বা পরেও এ নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলতে চান না৻ বিবিসি বাংলার সাথেও কথা বলতে তারা রাজি হননি৻

তবে ই-ঘটক পাখিভাই বলছেন, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে তাঁর মাধ্যমে হওয়া বিয়ের সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে এবং তাঁর দেখাদেখি অন্যরাও এ প্রযুক্তি ব্যবহারে উৎসাহিত হচ্ছেন৻

এই রিপোর্ট সম্পর্কে মতামত দিন:

যোগাযোগ করুন

* এই ঘরগুলি অবশ্যই পূরণ করতে হবে

ক্যারেকটার: 0

এই অনুরোধটি রক্ষা করতে একমাত্র আপনার ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করা হবে.


সর্বশেষ সংবাদ

অডিও খবর

ছবিতে সংবাদ

বিশেষ আয়োজন

BBC navigation

BBC © 2014 বাইরের ইন্টারনেট সাইটের বিষয়বস্তুর জন্য বিবিসি দায়ী নয়

কাসকেডিং স্টাইল শিট (css) ব্যবহার করে এমন একটি ব্রাউজার দিয়ে এই পাতাটি সবচেয়ে ভাল দেখা যাবে৻ আপনার এখনকার ব্রাউজার দিয়ে এই পাতার বিষয়বস্তু আপনি ঠিকই দেখতে পাবেন, তবে সেটা উন্নত মানের হবে না৻ আপনার ব্রাউজারটি আগ্রেড করার কথা বিবেচনা করতে পারেন, কিংবা ব্রাউজারে css চালু কতে পারেন৻