Got a TV Licence?

You need one to watch live TV on any channel or device, and BBC programmes on iPlayer. It’s the law.

Find out more
I don’t have a TV Licence.

সরাসরি রিপোর্টিং

time_stated_uk

  1. এরই সাথে শেষ হলো বিবিসি বাংলার লাইভ পেজ।

    আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাদের সবাইকে জানাই ধন্যবাদ। ভবিষ্যতেও এধরনের ঘটনায় আপনাদের সঙ্গ পাবো বলে আশা করছি।

    আজ যা কিছু হলো তার অনেক কিছুই আপনারা পাবেন আমাদের বিবিসি বাংলার ওয়েবসাইটে। ওয়েবসাইটের ঠিকানা দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

    পাশাপাশি বিবিসি বাংলার ফেসবুক পাতায়ও রয়েছে নানা ধরনের কন্টেন্ট। ফেসবুক পাতার ঠিকানা পেতে এখানে ক্লিক করুন।

    এসব কন্টেন্ট ভাল লাগলে লাইক দিন এবং শেয়ার করুন।

  2. বিশ্লেষণ: পশ্চিমবঙ্গে হিন্দুত্ববাদী বিজেপি'র উত্থানের তাৎপর্য কী?

    এবার ভারতের নির্বাচনে প্রধান প্রশ্ন ছিল নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বিজেপি আবার ক্ষমতায় ফিরবে কিনা! আর তারপরেই যে প্রশ্ন নিয়ে ভারতের মিডিয়ায় সবচেয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে, তাহলো বিজেপি কি পশ্চিম বাংলায় মমতা ব্যানার্জীর শক্ত দুর্গে ফাটল ধরাতে পারবে?

    পড়ুন: সাংবাদিক সুবীর ভৌমিকের বিশ্লেষণ

  3. পরাজয় মেনে রাহুল গান্ধী: এটা ছিল বিচারধারার লড়াই

    দিল্লিতে দলের সদর দফতরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে পরাজয় স্বীকার করে নিয়েছেন দেশের প্রধান বিরোধী নেতা, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

    নরেন্দ্র মোদীকে জয়ের জন্য অভিনন্দন জানিয়ে মি: গান্ধী বলেন, আমাদের লড়াই হল বিচারধারা বা ভাবধারার লড়াই। নরেন্দ্র মোদী এক ধরনের চিন্তাভাবনায় বিশ্বাস করেন, কংগ্রেস অন্য ভাবনায় বিশ্বাস করে। আমাদের দৃষ্টিভঙ্গী সম্পূর্ণ আলাদা। কিন্তু এখন আমাদের এটা মেনে নিতেই হবে যে তাদের বিচারধারাই এখন জয়ী হয়েছে।

    কংগ্রেস সদরদপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে রাহুল গান্ধী
    Image caption: কংগ্রেস সদরদপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে রাহুল গান্ধী
  4. ভারতের নির্বাচনের নাটকীয় প্রভাব শেয়ার বাজারে

    নির্বাচনের ফলাফল ভারতের শেয়ার বাজারের ওপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

    এর আগে যখন প্রাথমিক ফলাফল থেকে জানা যাচ্ছিল যে মি. মোদি সুনিশ্চিতভাবেই বিজয়ী হতে যাচ্ছেন, তখন স্টক মার্কেটের মূল্য সূচক আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যায়।

    প্রধান দুই বাজার সেনসেক্স এবং নিফটি৫০-এর সূচক যখন বাড়তে থাকে তখন বিনিয়োগকারী উল্লাস করতে থাকেন।

    মি. মোদি দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে ব্যবসা-বান্ধব বলে প্রচার করে আসছেন।

    তাই শেয়ার বাজারের ঊর্ধ্বগতি তার প্রতি বিনিয়োগকারীদের সমর্থনের ইংগিত বলেই মনে করা হচ্ছে।

    তবে ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার দৃশ্যত কমে এসেছে।

    গত কয়েক মাসে গাড়ি এবং দুই-চাকার বাহনের বিক্রি চরমভাবে কমেছে।

    এ দুটিকে ভোক্তাদের চাহিদার গুরুত্বপূর্ণ সূচক বলে মনে করা হয়।

    নতুন সরকারের জন্য এটা একটা প্রধান চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখা দিতে পারে।

    গত পাঁচ বছরে মি. মোদি অর্থনীতিতে বেশি কিছু সংস্কার করেছেন।

    বিশ্লেষকরা মনে করছেন, তাকে এগুলোর ওপর আরও কাজ করতে হবে, এবং আগামী দিনগুলিতে আরও বলিষ্ঠ অর্থনৈতিক নীতিমালা গ্রহণ করতে হবে।

  5. ভোটারদের আবার ধন্যবাদ জানালেন মোদি

    নির্বাচনে বিপুল বিজয়ের পর নরেন্দ্র মোদি আরেকবার টুইট করে ভোটারদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এত তিনি বলেছেন, ভারতে ধন্যবাদ! আমাদের জোটের প্রতি যে শ্রদ্ধা দেখানো হয়েছে তাতে আমরা আপ্লুত হয়েছি। জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটানোর জন্য এটা আমাদের আরও শক্তি জোগাবে।

    View more on twitter
  6. Post update

    কলকাতা থেকে অমিতাভ ভট্টশালী জানাচ্ছেন:

    বেলা সাড়ে দশটার দিকেই বোঝা যাচ্ছিল যে পশ্চিমবঙ্গের বহু কেন্দ্রেই এগিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। তখনই পৌছিয়েছিলাম বিজেপির রাজ্য দপ্তরে।

    রাস্তাটা গেরুয়া আবিরে ঢেকে গিয়েছিল, আবিরমাখা সমর্থকদের মুখ বোঝা কঠিন হয়ে উঠেছিল।

    কেউ স্লোগান দিচ্ছিলেন 'জয় শ্রীরাম' কেউ বলছিলেন 'হর হর মোদী, ঘর ঘর মোদী'। আর প্রায় সবার মুখেই ছিল 'বন্দে মাতরম' ধ্বনি।

    বিজেপির কয়েকজন কর্মী বলছিলেন, "খুব ভাল ফল হবে জানতাম, কিন্তু সেটা যে এত বেশি আসন হয়ে যাবে, আমরা ভাবি নি।"

    আরেকজন পাশ থেকে বলছিলেন, "মমতা ব্যানার্জীই তো আমাদের দলকে এত ভাল ফল করতে সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন। তিনি যেভাবে মুসলিম তোষণ শুরু করেছেন, তাতে আমরা হিন্দুরা একজোট হয়েছি।"

    কলকাতায় বিজেপি সমর্থকরা
    Image caption: কলকাতায় বিজেপি সমর্থকরা

    তার কিছুক্ষণ পরে যখন মমতা ব্যানার্জীর বাসভবন হরিশ মুখার্জী রোডের সামনে পৌঁছলাম, সেখানে ৫০-৬০ জন সাংবাদিক আর অনেক নিরাপত্তা রক্ষী ছাড়া আর কেউ নেই। রাস্তাও ফাঁকা। পাশের রাস্তায় দলের এক ক্যাম্পে বসেছিলেন বেশ কিছু সমর্থক। নিজেদের মধ্যে নিচু গলায় কথা বলছিলেন। আলোচনার বিষয়, 'এই ফল কী করে হয়ে গেল!"

    বিস্ময় তাদের চোখে মুখে।

    দক্ষিণ কলকাতা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মালা রায়ের নির্বাচনী কার্যালয়ে গিয়ে দেখছিলাম অনেক সমর্থক টিভি দেখছেন, সবাই নিশ্চুপ।

    হঠাৎই ঘোষণা হল যে তিনি প্রায় তিন লক্ষ ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। সঙ্গে সঙ্গেই উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়লেন সমর্থকরা।

    দলনেত্রী মমতা ব্যানার্জীর নামে জিন্দাবাদ ধ্বনি উঠল, তৃণমূল কংগ্রেস জিন্দাবাদ স্লোগান দিতে দিতে সবুজ আবির বার করলেন সবাই।

    তারপরে অনেকগুলি মোটরসাইকেলে চেপে দলের পতাকা উড়িয়ে বেরলেন তারা।

    কলকাতায় তৃণমূল সমর্থকরা
    Image caption: কলকাতায় তৃণমূল সমর্থকরা

    আর দপ্তরে রয়ে গেলেন যারা, তাদের কয়েকজন বলছিলেন, "বিশ্বাসঘাতকতা করেছে তো বামপন্থীরা। তাদের ভোট সব গেরুয়া শিবিরে গেছে।"

    নির্বাচন বিশ্লেষক সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী বলছেন বামেরা প্রতিশোধ নিতে বিজেপিকে ভোট দিয়েছে।

    Quote Message: যে প্রায় ২২ শতাংশ ভোট বামেদের কমেছে, ততটাই কিন্তু বিজেপির ভোট বেড়েছে পশ্চিমবঙ্গে। তাই এটা ঘটনা যে অনেক বাম মনোভাবাপন্ন মানুষ মনে করেছেন তারা নিজেরা তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে কিছু সুবিধা করে উঠতে পারছে না, অতএব এমন দলকে ভোট দাও যারা তৃণমূলের সঙ্গে লড়তে পারবে। from সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী নির্বাচন বিশ্লেষক
    সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরীনির্বাচন বিশ্লেষক
  7. তিস্তাসহ অমীমাংসিত ইস্যু কীভাবে সামলাবে বাংলাদেশ?

    দিল্লি সব সময় বলে এসেছে, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আপত্তিতেই মূলত তিস্তা চুক্তি আটকে আছে। এবার নরেন্দ্র মোদী তার প্রথম দফার চেয়ে বড় ম্যান্ডেট নিয়ে ক্ষমতায় আসতে যাচ্ছেন, এবং পশ্চিমবঙ্গেও তার দল সাফল্যের দেখা পেয়েছে। তাহলে কি তিস্তা নিয়ে এবার আশাবাদী হতে পারে বাংলাদেশ?

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক লাইলুফার ইয়াসমিন সতর্ক করে দিয়ে বলছেন, এখনি সে আশা করা হলে ভুল হবে।

    Quote Message: মনে রাখতে হবে তিস্তা ইস্যু ভারতের জন্য একটা দরকষাকষির বিষয়। ফলে খুব শীঘ্রই এটা সমাধান হয়ে যাবে সে আশা করা ভুল হবে। এই তিস্তার পানি বন্টন নিয়ে ভারতের অভ্যন্তরীণ রাজনীতির আরেকটা রূপ দেখা যাবে কয়েক মাসের মধ্যেই। তখন বোঝা যাবে এজন্য মমতা ব্যানার্জীর আপত্তিই একমাত্র কারণ কিনা। from অধ্যাপক লাইলুফার ইয়াসমিন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
    অধ্যাপক লাইলুফার ইয়াসমিনআন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
    মমতা ব্যানার্জি
    Image caption: মমতা ব্যানার্জি
  8. কংগ্রেস সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন করতে পারে

    দিল্লিতে কংগ্রেস পার্টির সদর দপ্তর থেকে বিবিসি হিন্দির জুবায়ের আহমেদ জানাচ্ছেন দলের কর্মী ও মুখপাত্ররা ফলাফলে স্তম্ভিত। তারা “জবাব দেবার ভাষা হারিয়ে ফেলেছেন,” জানাচ্ছেন জুবায়ের। ফলাফলের এই প্রাথমিক ট্রেণ্ডের কারণ তারা ব্যাখ্যা করতে পারছেন না। কংগ্রেস “বিস্ময়করভাবে জিতে যাবে” এমনটা তারা নিশ্চিতভাবে আশা করেননি, তবে তারা এর থেকে অনেক ভাল ফল আশা করেছিলেন। একজন মুখপাত্র দুপুরের পর ট্রেণ্ড দেখে পরাজয় মেনে নেন। যদিও আনুষ্ঠানিকভাবে তিনি বলেছেন প্রাথমিক ট্রেণ্ড সন্ধ্যার দিকে উল্টে যেতে পারে- এমন সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায় না। জুবায়ের আহমেদ জানাচ্ছেন সন্ধ্যায় দল একটা সংবাদ সম্মেলন করার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে তাকে জানানো হয়েছে। দলের ঊর্ধ্বতন নেতারা হয়ত ওই সম্মেলন থেকে পরাজয় মেনে নেবার ঘোষণা দিতে পারেন। তবে দলের সভাপতি রাহুল গান্ধী ওই সংবাদ সম্মেলনে হাজির থাকবেন কিনা সেকথা কেউ বলতে পারেনি।

  9. কংগ্রেসের সব আয়োজন বৃথাই পড়ে রইল

    রাজধানী দিল্লিতে কংগ্রেস পার্টির সদর দপ্তরে পড়ে রইল খালি মাঠ। ফলাফলের 'আর্লি ট্রেণ্ডে' নরেন্দ্র মোদীর দল কংগ্রেসকে পেছনে ফেলে দেয়ায় ক্যামেরা ও অন্যান্য আয়োজন আর কাজে লাগল না।

    দিল্লিতে কংগ্রেসের সদর দপ্তর
    Image caption: দিল্লিতে কংগ্রেসের সদর দপ্তর
  10. বিজেপি পুনরায় সরকার গঠন করলে কী আশা করতে পারে বাংলাদেশ?

    বিজেপি পুনরায় সরকার গঠন করলে দুই দেশের মধ্যে যেসব দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে সহযোগিতা চলমান আছে, তার ধারাবাহিকতা চলতে থাকবে বলে মনে করেন বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত হুমায়ুন কবির।

    Quote Message: বাংলাদেশের কাছে এখন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হবে অর্থনৈতিক বিষয়গুলো, যেমন বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং অর্থনৈতিক যোগাযোগ বাড়ানোর বিষয়গুলো। ভারতের নতুন সরকার সে জায়গায় কাজ করবে - সে আশা করা যায় এখন। from হুমায়ুন কবির সাবেক রাষ্ট্রদূত, বাংলাদেশ
    হুমায়ুন কবিরসাবেক রাষ্ট্রদূত, বাংলাদেশ
  11. নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার সময় কলকাতার চিত্র

    নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার সময় কলকাতায় বিভিন্ন দলের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া উঠে এসেছে বিবিসির অমিতাভ ভট্টশালীর ক্যামেরায়।

    Video content

    Video caption: লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল: কলকাতার চিত্র
  12. নরেন্দ্র মোদীর টুইট....

    নির্বাচনের ফল গণনায় নিরঙ্কুশ বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে নরেন্দ্র মোদীর বিজেপি।

    ইতোমধ্যেই মমতা ব্যানার্জি সহ বিরোধী অনেকেই পরাজয় মেনে নিয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদীকে।

    ফল গণনা শুরুর পর কোনো টুইট করেননি মোদী।

    অবশেষে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত হওয়ার পর টুইট করলেন তিনি।

    টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন: একসাথেই এগিয়ে যাবো। একসাথেই উন্নতি করবো। একসাথেই শক্তিশালী ভারত গড়বো।

    View more on twitter
  13. জয়ের দিকে অখিলেশ ও মুলায়েম

    উত্তর প্রদেশে জয়ের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছেন অখিলেশ যাদব ও তার বাবা মুলায়েম সিং যাদব।

    তাদের দুটি আসনই সমাজবাদী পার্টির শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত।

    এবার নির্বাচনের আগে বিজেপির বিরুদ্ধে তাদের গত প্রায় দু দশকের প্রতিপক্ষ মায়াবতীর সাথেই জোট গড়েছিলেন তারা।

    অখিলেশ ও মায়াবতী একজোট হয়ে সভা সমাবেশও করেছেন অনেক।

    কিন্তু তাদের জোট কার্যত মোদীর কোনো ক্ষতি করতে পারেনি।

    উত্তর প্রদেশে বিজেপি ও সমমনারা এগিয়ে আছে ৫৮ আসনে।

    অখিলেশ যাদব
    Image caption: অখিলেশ যাদব
  14. বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন মমতা ব্যানার্জি

    তৃণমূল নেত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এক টুইট বার্তায় বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।

    তবে তিনি এটাও বলেছেন ফলাফল সম্পূর্ণ পর্যালোচনা করে এই নিয়ে তাঁর মতামত জানাবেন তিনি।

    টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, "বিজয়ীদের অভিনন্দন। কিন্তু পরাজিতরা সব হারায়নি। আমাদের সবকিছু পর্যালোচনা করতে হবে এবং এরপর সবার সাথে আমাদের মতামত শেয়ার করবো। এখন গণনা পর্ব পুরোপুরি শেষ হোক .."।

    View more on twitter
  15. বিজেপির উত্তর প্রদেশের 'সামান্য ক্ষতি' পুষিয়ে দিলো পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশা

    বিবিসি বাংলার দিল্লি সংবাদদাতা শুভজ্যোতি ঘোষ জানাচ্ছেন, ভারতের সাধারণ নির্বাচনে ‘বেলওয়েদার স্টেট’ হিসেবে যার পরিচিতি, সেই উত্তরপ্রদেশে বিজেপি যে বেশ কিছু আসন হারাতে পারে প্রায় সব রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকই কিন্তু সেই পূর্বাভাস করেছিলেন।

    সারা দেশে সর্বোচ্চ, ৮০টি লোকসভা আসন আছে ওই রাজ্যেই – আর ২০১৪ সালে তার মধ্যে ৭৩টিই গিয়েছিল বিজেপির দখলে।

    হিন্দি বলয়ের আরও তিন রাজ্য – মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও ছত্তিশগড়ের ৬৫টি আসনের মধ্যেও ৬২টি পেয়েছিল বিজেপি। ওই তিন রাজ্যেও এবারে সেই ফলের ধারা ধরে রেখেছে তারা।

    পশ্চিমবঙ্গে গতবারের জেতা মাত্র দুটি আসন থেকে একলাফে নয় গুণ শক্তিবৃদ্ধি করে বিজেপি প্রায় আঠারোটি আসন জেতার পথে এগোচ্ছে
    Image caption: পশ্চিমবঙ্গে গতবারের জেতা মাত্র দুটি আসন থেকে একলাফে নয় গুণ শক্তিবৃদ্ধি করে বিজেপি প্রায় আঠারোটি আসন জেতার পথে এগোচ্ছে

    কিন্তু উত্তরপ্রদেশে বিজেপির যতটা বিপর্যয় হবে বলে ধারণা করা হয়েছিল দেখা যাচ্ছে শেষ পর্যন্ত ততটা মোটেই হয়নি – বেলা দেড়টা নাগাদ তারা এগিয়ে আছে সে রাজ্যের ৫৯টি আসনে।

    অর্থাৎ গত বারের তুলনায় তারা সেখানে ১৪টির মতো আসন হারাতে চলেছে।

    কিন্তু বিজেপির এই সামান্য ক্ষতি পুষিয়ে দিচ্ছে পূর্ব ভারত – বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশার মতো রাজ্যদুটি।

    উত্তরপ্রদেশে জোট গড়েছে অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি ও মায়াবতীর বহুজন সমাজবাদী পার্টি
    Image caption: উত্তরপ্রদেশে জোট গড়েছে অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি ও মায়াবতীর বহুজন সমাজবাদী পার্টি

    পশ্চিমবঙ্গে গতবারের জেতা মাত্র দুটি আসন থেকে একলাফে নয় গুণ শক্তিবৃদ্ধি করে তারা প্রায় আঠারোটি আসন জেতার পথে এগোচ্ছে।

    ওড়িশাতেও যেখানে তারা গতবার মাত্র একটি আসনে জিতেছিল, সেই জায়গায় এবার তারা সাতটি আসনে এগিয়ে আছে।

    ফলে উত্তরপ্রদেশে যে ১৪টির মতো আসন বিজেপি খোয়াতে পারে, তার দেড়গুণ বেশি নতুন আসন তারা জিতে নিচ্ছে পূর্ব ভারতের দুটো রাজ্য থেকেই।

    বিজেপির স্ট্র্যাটেজিস্টরা নিজেদের শক্তিবৃদ্ধির জন্য দীর্ঘদিন ধরেই পাখির চোখ করে রেখেছিলেন পূর্ব ভারতকে, তা এতদিনে তাদের সুফল দিতে শুরু করেছে।

  16. 'সুনিশ্চিত বিজয়'

    মুম্বাই স্টক এক্সচেঞ্জের সামনে থেকে এ ছবিটি তোলা হয়েছে। বিজেপি আমার ক্ষমতায় আসছে এই খবরে ভারতের শেয়ারবাজারে রেকর্ড উত্থান দেখা গেছে।

    এক লোক ভি চিহ্ন দেখাচ্ছেন
  17. আবারো বিশাল জয়ের দিকে বিজেপি

    লোকসভা নির্বাচনের এখন পর্যন্ত পাওয়া ফল ইঙ্গিত করছে যে একটি বিশাল জয়ের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে নরেন্দ্র মোদীর বিজেপি।

    এখন পর্যন্ত যা ফল এসেছে তাতে বিজেপি জোট ৩৪৫ টি আসনে জয়লাভ করেছে।

    এর মধ্যে বিজেপি একাই ২৮০টির বেশি আসন পেয়েছে।

    দিল্লিতে বিজেপি সদরদপ্তরে এখন চলছে উৎসবের প্রস্তুতি।

    কর্মী সমর্থকরা জড়ো হয়ে উৎসবমূখর পরিবেশ তৈরি করেছে সেখানে।

    উল্লাস করছেন সমর্থকরা
    Image caption: উল্লাস করছেন সমর্থকরা
  18. ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শুভেচ্ছা

    বিজেপি বিপুল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় ভারতের জনগণকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। নরেন্দ্র মোদীকে শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন তিনি।

    View more on twitter
    View more on twitter
    View more on twitter
  19. বিজেপির সমর্থকদের বিজয়ের স্লোগান, খুশী নন কংগ্রেস সমর্থকরা

    View more on twitter
    View more on twitter
  20. বুথফেরত জরিপকেও পেছনে ফেললো বিজেপি

    Source: CVoter
    Image caption: Source: CVoter
Page 1 এর মধ্যে 4