আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

বিজ্ঞানের আসর

মানবদেহে লিভারের রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে যুগান্তকারী এক অগ্রগতি ঘটেছে৻ ব্রিটেনের বিজ্ঞানীরা এই চিকিৎসার মাধ্যমে পূর্ব লন্ডনের ৯ মাস বয়েসী এক শিশুর জীবন রক্ষা করতে সক্ষম হয়েছেন৻

এই শিশুর নাম ইয়াদ সাঈদ৻ তার বয়স যখন মাত্র দুই সপ্তাহ তখন থেকেই অকেজো হয়ে পড়ে তার লিভার৻

ছবির কপিরাইট SPL
Image caption লিভার সেল

সুস্থভাবেই জন্ম নিয়েছিলো ইয়াদ কিন্তু পরে এক ভাইরাসের আক্রমণে তার লিভার নষ্ট হয়ে যায়৻ হঠাৎ করে তার চোখ হলুদ হয়ে গেলে ওর পিতামাতা ওকে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান৻

এই চিকিৎসার অংশ হিসেবে কিংস কলেজ হাসপাতালের ডাক্তাররা অসুস্থ শিশুর শরীরে দাতার লিভারের কিছু সেল ইনজেকশনের মাধ্যমে প্রবেশ করিয়ে দেন৻ এরপর থেকেই তার লিভার কাজ করতে শুরু করে৻

হাসপাতালের কর্মকর্তারা বলছেন যে, এই প্রথম দাতার লিভারের সেল এভাবে রোগীর শরীরে প্রবেশ করানো হলো৻

বিজ্ঞানীরা বলছেন, লিভারের কিছু সেল ইনজেকশনের মাধ্যমে শিশুর তলপেটে প্রবেশ করানো হয়৻ এটা করা হয় বিশেষ এক ব্যবস্থার মাধ্যমে যাতে ওর শরীরের রোগ প্রতিরোধী ব্যবস্থা এই সেলগুলোকে আক্রমণ করতে না পারে৻

বাইরে থেকে প্রবেশ করানো এই সেল প্রাথমিকভাবে নষ্ট হয়ে যাওয়া লিভারকে কাজ করতে সাহায্য করে৻ তারপর লিভারটিকে আপনা থেকেই বেড়ে উঠতে থাকে৻

এই সেলগুলো শিশুর শরীরে কিছু প্রয়োজনীয় প্রোটিন উৎপাদন করতে শুরু করে এবং কাজ করতে থাকে অস্থায়ী লিভার হিসেবে৻ দু সপ্তাহের মধ্যেই ইয়াদের লিভার স্বাভাবিকভাবে কাজ করতে শুরু করে৻ বিজ্ঞানীরা বলছেন, এর ফলে লিভার প্রতিস্থাপনের কোনো প্রয়োজন হয়নি৻

বিজ্ঞানীরা জুপিটারের চাঁদে বা এই গ্রহের একটি উপগ্রহে পানির অস্তিত্বের সবচে ভালো তথ্য প্রমাণ পেয়েছেন বলে দাবী করছেন৻ তারা বলছেন, এ যাবৎকালের মধ্যে এটাই সবচে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য৻

ইউরোপার উপরিপৃষ্ট গবেষণা করে বিশ্লেষকরা বলছেন, উষ্ণ ও গরম জল বরফের আস্তরণ ভেদ করে উপরের দিকে উঠে আসছে৻ এর ফলে বাইরের স্তর গলে গলে ভেঙে পড়ছে৻

ছবির কপিরাইট AP
Image caption জুপিটারের উপগ্রহ ইউরোপা

গবেষণার নতুন এই আবিষ্কার প্রকাশ করা হয়েছে বিজ্ঞান বিষয়ক সাময়িকী- নেচারে৻

বিজ্ঞানীরা অনুমান করছেন যে বরফের এই স্তরের মাত্র তিন কিলোমিটার গভীরে হ্রদের অস্তিত্ব থাকতে পারে৻

পৃথিবী ছাড়া অন্য কোনো গ্রহ বা উপগ্রহে কোনো ধরনের জলের সন্ধান পেলে, বা সম্ভাবনা দেখা গেলেই বিজ্ঞানীরা উত্তেজিত হয়ে পড়েন৻ কারণ তারা মনে করেন যে, এর ফলে সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব থাকতে পারে৻

তারা এও বলছেন, চাদ থেকে পানি সংগ্রহের চেয়ে জুপিটারের এই উপগ্রহ থেকে জল সংগ্রহ হতে পারে অনেক সহজ একটা কাজ৻

এর আগেও এই উপগ্রহের যতো ছবি তোলা হয়েছে তা থেকে বিজ্ঞানীরা সন্দেহ করে আসছিলেন যে সেখানে বিশাল একটা সমুদ্র আছে, যার গভীরতা একশো মাইলের মতো৻ এই সমূদ্রের অবস্থান বরফের স্তরের ১০ থেকে ৩০ কিলোমিটার গভীরে৻

অনেক বিজ্ঞানী বৈজ্ঞানিক কল্প কাহিনীর লেখক আর্থার সি ক্লার্কের উপন্যাসের একটি চরিত্র ডেভিড বোম্যানের পদক্ষেপকে অনুসরণ করছিলেন৻ তার ওডেসি টু উপন্যাসের এই চরিত্র ইউরোপায় সমুদ্রের গভীরে প্রাণের সন্ধান পেয়েছিলো৻

বিজ্ঞানীরা বলছেন, পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল যেভাবে প্রতিনিয়ত উষ্ণ হচ্ছে সেই ধারা অব্যাহত থাকলে প্রতিকূল আবহাওয়ার ঝুঁকি আরো অনেক বেড়ে যেতে পারে৻ জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত জাতিসংঘের একটি কমিটি আইপিসিসির প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, গ্রীন হাউজ গ্যাসের নির্গমণের ফলে প্রত্যেকদিনের তাপমাত্রাও উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে৻ এর ফলে পৃথিবীর কোনো কোনো অঞ্চলে তীব্র ও দীর্ঘমেয়াদী খরার সৃষ্টি হয়েছে৻

ছবির কপিরাইট NASA
Image caption চাঁদের উপরিপৃষ্ঠের ছবি

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাসা পৃথিবীর উপগ্রহ চাঁদের এমন একটি ছবি প্রকাশ করেছে যাতে উপরিতলের অনেক কিছু বিস্তারিতভাবে ফুটে উঠছে৻ এরকম রেজ্ল্যুশনের ছবি এর আগে কখনো প্রকাশিত হয়নি৻ এই ছবি থেকে বিজ্ঞানীরা এখন চাঁদের প্রকৃত আকার সম্পর্কে জানতে পারবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে৻ এল.আর. ও নামের একটি মহাকাশ যান থেকে তোলা ছবির সাহায্যে এই ম্যাপটি তৈরি করা সম্ভব হয়েছে৻ ২০০৯ সালের জুন মাসে এই যানটিকে মহাকাশে পাঠানো হয়৻

প্রশান্ত মহাসাগরের গভীরে প্রায় ৬৬ হাজার কিলোমিটার পথ পরিভ্রমণের জন্যে চারটি রোবট যাত্রা শুরু করেছে৻ এর আগে মানববিহীন কোনো যান সমূদ্রের নিচ দিয়ে এতো দীর্ঘ পথ পরিভ্রমণ করেনি৻ যুক্তরাষ্ট্রের লিক্যুয়িড রোবোটিকস নামের একটি প্রতিষ্ঠান এই চারটি রোবটকে তৈরি করেছে৻ বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই ভ্রমণের সময় যেসব তথ্য পাওয়া যাবে তা থেকে সমুদ্রের গঠন ও তার পানির ধরন সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে৻ এই রোবটগুলো প্রায় তিনশো দিন ধরে সমুদ্রের তল দিয়ে চলাচল করবে৻

বিজ্ঞানের আসর পরিবেশন করছেন মিজানুর রহমান খান