iceland
আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

মাঠে ময়দানে

ছবির কপিরাইট AP
Image caption তিন লাখ জনসংখ্যার দেশ থেকে দশ হাজারই এখন দলকে সমর্থন দিতে ফ্রান্সে

চলতি ইউরো ফুটবলের আসরে বিস্ময় তৈরি করেছে বরফে মোড়া ছোট্টে দেশ আইসল্যান্ড।

উত্তর মেরুর কাছে মাত্র তিন লাখ জনসংখ্যার এই দেশ প্রথমবারের মত ইউরো ফুটবলের চূড়ান্ত পর্বে এসে তাক লাগিয়েছে।

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগালের সাথে ড্র করে, অস্ট্রিয়াকে হারিয়ে আইসল্যান্ড শেষ ষোলতে, এবং তারপর ইংল্যান্ডকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে।

সাবেক সার্বিয়ান সুপার স্টার দু হাজার ইউরোর গোল্ডে বুট পাওয়া ফুটবলার স্লাভেন মেলোশোভিচ বিবিসিকে বলছিলেন, এখন পর্যন্ত আইসল্যান্ডের পারফরমেন্সে তিনি সবচেয়ে বিস্মিত।

"ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, আইসল্যান্ড এখন পর্যন্ত এই টুর্নামেন্টর সবচেয়ে বড় বিস্ময়। লেস্টার সিটি যেমন এবছর যেমন ইংলিশ প্রিমিয়িারশিপ জিতে তাক লাগিয়েছে, ইউরোতে আইসল্যান্ডকে দেখে আমার সেরকম লাগছে। মাত্র তিন লক্ষ জনসংখ্যার দেশে হয়ে তারা যা করছে, প্রায় অবাস্তব। কোনো ভয়-ভীতি ছাড়াই তারা ইউরোপের শ্রেষ্ঠ দলগুলোর সাথে যেভাবে খেলছে তা বিস্ময়কর।"

বিস্ময় অবশ্যই কারণ বরফের কারণে বছরের অধিকাংশ সময় বাইরে ফুটবল খেলাই হয়না সেখানে। বদ্ধ জায়গায় কৃত্রিম টার্ফে খেলতে হয়। দলের সবাই ফুল টাইম পেশাদার ফুটবলারও নন। দুই কোচের একজন দাঁতের ডাক্তার।

দলের এই অসামান্য সাফল্যে উচ্ছ্বাসিত আইসল্যান্ডিক ফ্যানরা। তিন লাখ জনসংখ্যার ১০,০০০ দলকে সমর্থন জোগাতে এখন ফ্রান্সে। গ্যালারিতে সারাক্ষণ সরব থাকেন তারা।

টিভিতে ইউরো ২০১৬’র দিকে নিয়মিত নজর রাখছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক কোচ মারুফুল হক। তিনিও মনে করেন, ইউরোতে আইসল্যান্ডের সাফল্য সত্যিই বিস্ময়কর।

"বড় দলগুলোর বিরুদ্ধে যে কৌশল তারা দেখাচ্ছে, তা অবাক করার মতো। রোনালদো বলেছেন আইসল্যান্ড তাদের গোলের সামনে বাস দাঁড় করিয়ে রাখে। আমিতো বলবো এটা খারাপ কিছু নয়, এটা তাদের কৌশল। ডিফেন্স ভাঙাটাই প্রতিপক্ষ দলের কাজ।"

আরেকটি আইপিএল আসছে

মাত্রাতিরিক্ত টি-২০ ক্রিকেট হচ্ছে বলে ক্রমবর্ধমান সমালোচনার তোয়াক্কা না করে আরেকটি মিনি আইপিএল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটে বোর্ড।

সেপ্টেম্বর থেকে প্রতি বছর দুই সপ্তাহ ধরে এই টুর্নামেন্ট হবে। এবং তা হবে ভারতের বাইরে কোনো ভেন্যুতে।

ক্রিকেট বিশ্লেষক বরিয়া মজুমদার বলছেন, খুব সম্ভবত ইংল্যান্ড হবে নতুন এই মিনি আইপিএলের ভেন্যু। "বাড়তি কিছু পয়সা করাই এর প্রধান উদ্দেশ্য।"