রিওতে প্যারালিম্পিকসের বর্ণাঢ্য উদ্বোধন

বর্ণিল আতজবাজি
ছবির ক্যাপশান,

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ ছিল বর্ণিল আতশবাজি

ব্রাজিলের ঐতিহ্যবাহী সঙ্গীত, বর্ণিল আতশবাজি আর আধুনিক প্রযুক্তির মনোমুগ্ধকর প্রদর্শনী দিয়ে মারাকানা স্টেডিয়ামে উদ্বোধন হয়েছে রিও প্যারালিম্পিকসের।

আয়োজকেরা বলছেন, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সনাতন ধ্যানধারণার বিপরীতে প্যারালিম্পিক কমিউনিটির কর্মচাঞ্চল্যের প্রতিফলন ঘটানোই ছিল তাদের লক্ষ্য।

প্যারালিম্পিকসে অংশ নিচ্ছেন প্রায় সাড়ে চার হাজার প্রতিযোগী। যদিও শুরুতে অর্থ সংকট আর ধীরগতির টিকিট বিক্রিতে এই আয়োজনের প্রস্তুতি নিয়ে কিছুটা সংশয় তৈরি হয়েছিল।

কিন্তু পরে তা কাটিয়ে ওঠা গেছে বলেই জানাচ্ছেন আয়োজকেরা।

আন্তর্জাতিক প্যারালিম্পিকস কমিটির একজন কর্মকর্তা বলেন, ব্রাজিলের বাজার সবসময়ই একটু ধীর। ফলে শুরুতে টিকিট বিক্রি ধীর থাকলেও এখন লোকজন টিকিট কিনছে।

ছবির ক্যাপশান,

প্যারালিম্পিক কমিউনিটির কর্মচাঞ্চল্যের প্রতিফলন ঘটাতে চেয়েছেন আয়োজকেরা

কিন্তু উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেননি আইওসি প্রেসিডেন্ট টমাস বাখ। গত ৩২ বছরের মধ্যে এই প্রথম কোন আইওসি প্রেসিডেন্ট প্যারালিম্পিকসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিলেন না।

এর আগে রাশিয়াকে এই আসর থেকে পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়।

কিন্তু বেলারুশের একজন সদস্য উদ্বোধনী প্যারেডে হাঁটার সময় রাশিয়ার একটি পতাকা তুলে প্রদর্শন করলে, কর্তৃপক্ষ পতাকাটি জব্দ করে।

আইপিসি বলেছে, কোনো কিছু সিদ্ধান্ত নেবার আগে অপরাধীকে তারা খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে।

এদিকে, একই দিনে রাশিয়ার মস্কোতে উদ্বোধন হয়েছে অলটারনেটিভ প্যারালিম্পিক এর আসর।

এই আসরের বিভিন্ন ইভেন্টে দুই দিনে প্রায় ১৬৩ জন এ্যাথলিট-এর অংশ নেবার কথা রয়েছে।